‘হাসপাতালে নবজাতক শি,শু রেখেই পালালেন নি,ষ্ঠু,র মা-বাবা’

‘হাসপাতালে নবজাতক শি,শু রেখেই পালালেন নি,ষ্ঠু,র মা-বাবা’

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক নবজাতক শিশুকে হাসপাতালে রেখে পালিয়েছেন মা-বাবা। রবিবার (১ আগস্ট) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঘটনাটি ঘটে।

সোমবার (২ আগস্ট) উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শফিউর রহমান মজুমদার এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত রবিবার রাত সাড়ে ৯টায় এক প্রসূতি সন্তান প্রসবের পরই মা-বাবা হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়। নবজাতক ছেলে সন্তানটি বর্তমানে হাসপাতালের হেফাজতে রয়েছে।

এ ঘটনায় বাঁশখালীজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়ায় কিছু নিঃসন্তান দম্পতি ওই নবজাতককে দত্তক নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। সোমবার সকাল থেকেই বাচ্চাটি নেয়ার জন্য অনেকেই হাসপাতাল এলাকায় ভিড় জমান।

হাসপাতাল ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালের রেজিস্টারে নবজাতকের মাতা অর্চনা বড়ুয়া ও স্বামী সুবোধ বড়ুয়া নাম লিপিবদ্ধ করা হয়। তাদের ঠিকানা জলদী লেখা থাকলেও পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা জানা যায়নি। স্থানীয়রা পৌরসভার উত্তর জলদী বড়ুয়াপাড়া এলাকায় এদের বাড়ী বলে ধারণা করেন। পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তপন বড়ুয়া দৈনিক সকালের সময়কে বলেন,

এ বিষয়ে নবজাতকের পিতা-মাতার সঠিক সন্ধানে পুলিশ ও পৌর প্রশাসনের লোকজন অনেক অনুসন্ধান চালিয়েছে কিন্তু এখন পর্যন্ত ওই নামে আমার ২ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর জলদী বড়ুয়াপাড়া এলাকায় কাউকে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শফিউর রহমান মজুমদার বলেন, নবজাতক ছেলেটিকে পেতে ইতোমধ্যে অধীর আগ্রহে অনেক নিঃসন্তান দম্পতি হাসপাতাল এলাকায় এসেছেন।

ফুটফুটে শিশুটি কার কপালে জুটছে তা সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার। আমার জানামতে আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া দত্তক দেয়া যায় না। তবে আমরা শিশুটিকে তার মা-বাবার কাছে ফেরত দেয়ার চেষ্টা করছি।

শেয়ার করুন