Breaking News

স্ত্রীকে গাছে বেঁ’ধে নি’র্যাত’ন, স্বামী আ’টক

গাজীপুরের কালিয়াকৈর রাখালিয়াচাল এলাকায় পারিবারিক বিরোধের জেরে স্ত্রীকে গাছে বেঁ’ধে অ’মানবি’ক নি’র্যাতনে’র অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘ’টনায় অভিযুক্ত স্বামী মুক্তার হোসেনকে সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে আ’টক করেছে মৌচাক ফাঁড়ি পুলিশ। আ’টককৃ’ত ব্যক্তি রাখালিয়াচালা এলাকার মৃ’ত নুর মোহাম্মদ মধু মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় ট্রাকচালক।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মুক্তার হোসেন দীর্ঘদিন আগে জীবিকার খোঁজে মানিকগঞ্জ থেকে গাজীপুরে আসেন। পরে তিনি উপজেলার রাখালিয়াচালা এলাকায় বসবাস করে আসছেন। তিনি সাভার এলাকায় ট্রাক চালাতেন। ৮ বছর আগে তিনি প্রথম স্ত্রী ফরিদা আক্তারকে তালাক দেন। ওই ঘরে একটি ছেলেসন্তান ছিল।

পরে এক মেয়েসহ লাভলী আক্তারকে দ্বিতীয় বিয়ে করে ঘর-সংসার করেন। পরবর্তীতে মুক্তার হোসেন মা’দ’কসে’বন ও ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। মা’দ’কাস’ক্ত হয়ে বিভিন্ন সময় তার দ্বিতীয় স্ত্রী লাভলীকে মা’রধরসহ নানা নি’র্যা’তন করতেন। এর ধারাবাহিকতায় স্বামী মুক্তার হোসেন সোমবার বিকেলে লাভলীকে বেধম মা’রপিট করেন। একপর্যায়ে মুক্তার লাভলীকে রশি দিয়ে গাছে বেঁ’ধে লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মা’রপিট’সহ নানা নি’র্যাতন করেন।

এ সময় ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসেন এবং পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘ’টনা’স্থলে গিয়ে লাভলীকে উ”দ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে পুলিশ নি’র্যাত’নকা’রী স্বামী মুক্তার হোসেনকে আ’টক করে।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, অ’ভিযুক্ত মুক্তারকে আ:টক করা হয়েছে। স্ত্রীর অ’ভিযো’গের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Check Also

উদ্বোধনের আগেই ধসে পড়লো সেতু

সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর সড়কের কোন্দানালা খালের ওপর একটি নির্মাণাধীন সেতু উদ্বোধনের আগেই ধসে পড়েছে। সোমবার (১ মা’র্চ) …