Breaking News

সৌদিতে বিয়ে করে ৮ মাস সংসার, স্ত্রীর টাকা-গহনা নিয়ে পালিয়ে এলেন দেশে!

সৌদি আরবে অবস্থান করা অবস্থায় দুজনের পরিচয়। পরে প্রেম ও বিয়ে। আট মাস সংসারের পর স্ত্রীর জমানো টাকা ও ১০ ভরি সোনার গহনা নিয়ে পা’লিয়ে দেশে আসে স্বামী। খবর পেয়ে সপ্তাহ পর স্ত্রী স্বামীর গ্রামের বাড়িতে এসে অবস্থান নিলে সেখানেই মা’রধ”রের শি”কার হন। এ অবস্থায় পুলিশ উ’দ্ধা’র করে থা’নায় নিয়ে আসে। রবিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে ময়মনসিংহের নান্দাইলের জাহাঙ্গীরপুর ইউনিয়নের সুরাটি গ্রামে।

থানায় অবস্থান করা ওই নারী ও লিখিত অ’ভিযো’গ থেকে জানা যায়, টাঙ্গাইলের ভুয়াপুর উপজেলার মাইজবাড়ি গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের মেয়ে মোসা. নুরজাহান বেগম গত প্রায় ১৩ বছর আগে সৌদি আরবে যায় কাজের স’ন্ধানে। সেখানে একটি মাদরাসায় ও একটি দোকানে কাজ নেন। এর মধ্যে পরিচয় ঘটে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার দক্ষিণ জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের মো. জজ মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়ার (২৫) সঙ্গে। পরিচয়ের একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে সম্প’র্ক গড়ে উঠলে ২০২০ সালের ৪ মে বিয়ে হয়।

ভু’ক্তভো’গী নারী জানান, সংসার চলা অবস্থায় বাড়িতে ঘর করার কথা বলে কয়েক দফায় স্বামী সোহাগ মিয়া তাঁর কাছ থেকে প্রায় ৩০ লাখ টাকা নেয়। সোহাগ তাঁকে জানায়, কয়েক বছর চাকরি করার পর তাঁরা দুজনে আর সৌদি আরবে থাকবে না। দেশে এসে পড়বে। স্বামীর কথামতোই সব কিছু চলতে থাকে। এ অবস্থায় গত ১৭ জানুয়ারি দুজনের কর্মস্থলে চলে গেলে রাতে এসে দেখতে পান স্বামী সোহাগ মিয়া বাসায় আসেনি। পরদিন অনেক জায়গায় খোঁজাখুজি করেও তাঁর কোনো স’ন্ধা’ন পাওয়া যায়নি।

এর মধ্যে সোহাগের এক মামা (সৌদিপ্রবাসী) সবুজ মিয়ার মাধ্যমে জানতে পারেন সোহাগ দেশে চলে গেছে। পরে বাসায় খোঁজ করে দেখতে পান তাঁর ড্রয়ারে থাকা নগদ আড়াই লাখ টাকা ও সোকেসে থাকা বিভিন্ন গহনা (যার পরিমাণ প্রায় ১০ ভরি) খো’য়া যায়। এ ঘটনার এক সপ্তাহ পর তিনি দেশে এসে সরাসরি স্বামীর গ্রামের বাড়িতে এসে দেখা পেলেও স্ত্রী হিসেবে তাকে অ’স্বীকার করে বিভিন্ন ধরনের হু”ম’কি-ধ’ম’কি দিয়ে লা’পা’ত্তা হয়ে যায়।

এরপর থেকে গত এক সপ্তাহ ধরে তিনি স্বামীর অপেক্ষায় থাকলেও রবিবার স্বামীর বাবা ও পরিবারের অন্যরা তাঁকে গ’লাধা’ক্কা দিয়ে বের করার চেষ্টার পর ব্যাপক ‘মা”রধ’র করে। খবর পেয়ে পুলিশ উ”দ্ধা’র করে থা’নায় নিয়ে আসে। নান্দাইল থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, ঘটনার সু’ত্রপাত সৌদি আরবে। তারপরও স্বামীর বাড়িতে লা”ঞ্ছি’ত হওয়ার ঘটনায় ওই নারীর কাছ থেকে একটি লিখিত অ’ভিযো’গ নেওয়া হয়েছে। তদ’ন্তসাপে’ক্ষে আই’নি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

Check Also

করো’না র টিকা নিতে গিয়ে জানতে পারলেন তিনি মা’রা গেছেন

করো’নাভাই’রাসের টিকার (ভ্যাকসিন) নিব’ন্ধন ক’রতে গিয়ে দে’খতে পান ২০১৪ সালের ৩ জুনে মা’রা গেছেন তিনি। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *