সরল মনে তরুণী গেলেন হোটেলে, ভোর না হতেই প্রেমিকের নতুন নাটক

সরল মনে তরুণী গেলেন হোটেলে, ভোর না হতেই প্রেমিকের নতুন নাটক

শুরুটা মোবাইলে। কয়েকদিন কথা বলার পর প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। কিছুদিন না যেতেই দেন বিয়ের প্রস্তাব। রাজিও হন প্রেমিকা। প্রেমিকের কথায় সরল মনে এলেন একটি আবাসিকে হোটেলে। কিন্তু সেখানে বিয়ে নয়; করেন রাতভর ধর্ষণ। ভোর না হতেই তরুণীকে একা রেখে পালিয়ে যান প্রেমিক।

শুক্রবার ঝিনাইদহ সদর থানায় এমনই মামলা করেছেন এক ভুক্তভোগী তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহ শহরের বাজার এলাকায়। ভুক্তভোগী তরুণীর বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামে।

মামলার পর সকালেই ঝিনাইদহ শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে ২৪ বছর বয়সী প্রেমিক জুবায়ের হোসেনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তার বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার অশ্বস্থলী গ্রামে।

পুলিশ জানায়, মোবাইলে জুবায়েরের সঙ্গে ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। জুবায়ের দ্রুত বিদেশ চলে যাবেন বলে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। প্রেমিকের কথায় সায় দিয়ে বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহ শহরে আসেন মেয়েটি। এরপর শহরের বাজার এলাকায় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে একটি আবাসিক হোটেলে ওঠেন তারা।

সেখানে মেয়েটিকে রাতভর ধর্ষণ করেন জুবায়ের। ভোরে ঘুম থেকে উঠেই ভুক্তভোগী তরুণীকে রেখে পালিয়ে যান তিনি। পরে শুক্রবার সকালে প্রেমিকের বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী তরুণী।

ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬-এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরীফুল আহসান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে জুবায়েরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন