সত্যিকারের বউ হওয়ার আগেই অনেক অভিজ্ঞতা হয়ে গেল: দীঘি

একসময়ের শিশুশিল্পী হিসেবে পরিচিতি লাভ করা প্রার্থনা ফারদিন দীঘি এখন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। বিয়ে না করলেও চলতি ব্রাইডাল সিজনে পর পর আটবার বউ সেজেছেন তিনি। মেকওভারের দায়িত্বে ছিলেন দেশের নামকরা সব মেকআপ শিল্পী।

এত বউ সাজেন, বিয়ে করতে মন চায় না? দীঘির উত্তর, ‘এ নিয়ে আটটা লুকে বউ সেজে ফেলেছি। বউ সাজতে আমাকে কেমন লাগবে মোটামুটি বুঝে ফেলেছি। এ জন্য বিয়ে করতে মন চাচ্ছে না। বিয়ে ছাড়াই তো সাজতে পারি।’

দীঘি বলেন, ‘প্রথমবার বউ সেজেছিলাম গত বছর এপ্রিলে। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করার পর দারুণ সাড়া পাই। মূলত তার পর থেকেই একের পর এক বউ সাজার প্রস্তাব পাই বিভিন্ন বিউটি পার্লার ও পত্রিকা থেকে।’

দীঘি আরো বলেন, ‘একজন মেয়ের বউ সাজতে ভালো লাগবে এটাই স্বাভাবিক। হাতে মেহেন্দি, গায়ে ভারী ভারী সব গহনা, জামদানি শাড়ি—আমার তো খুশিতে মন ভরে যায়। মাঝেমধ্যে হেসে উঠি, সত্যিকারের বউ হওয়ার আগেই অনেক অভিজ্ঞতা হয়ে গেল।’

তবে সত্যিকারের বউ হতে আরো কয়েক বছর সময় নেবেন বলে জানান তিনি। বলেন, ‘জীবনের এই কঠিন সিদ্ধান্তটা একটু চিন্তা-ভাবনা করেই নিতে চাই। হুট করে কোনো কিছু করে ফেলার পাত্রী আমি নই।’