‘লকডাউন’ ভেঙে মার্কেট খুললেন ব্যবসায়ীরা

সর্বাত্মক লকডাউনে বন্ধ রাখার নির্দেশ ভঙ্গ করে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার আরডিএ মার্কেট খুলেছেন ব্যবসায়ীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকাল ৯টা থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা দোকান খুলতে শুরু করেন। আগের দিন তাঁরা মার্কেট খোলার দাবিতে আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সকালে এসে তাঁরা সরাসারি দোকান খুলে বসেন।

সরজমিনে দেখা যায়, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই সাহেববাজার আরডিএ মার্কেটের ব্যবসায়ীরা প্রশাসনের অনুমতি না ছাড়াই বৃহস্পতিবার সকালে দোকান খুলে ফেলেন। তাৎক্ষণিক দোকানে ক্রেতারাও আসতে শুরু করেছে। ক্রেতাদের দাবি, অন্য কাজে এসে দোকান খোলা দেখে তারা বাজারে ঢুকে পড়েছেন।

ক্রেতা শাহনেওয়াজ করিম বলেন, ব্যাংকের কাজে এসেছিলেন। মার্কেট বন্ধ থাকার কারণে বাচ্চাদের কেনাকাটা করতে পারেননি। আজ হঠাৎ দোকান খোলা পেয়ে এসেছেন।

দোকানি নাজমুল হক বলেন, তাঁর দুই ছেলে। এক ছেলে উচ্চমাধ্যমিক ও অন্য ছেলে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। তাদের পেছনে খরচ ছাড়াও মাসে ১৫ হাজার টাকা দোকানভাড়া দিতে হচ্ছে। এক বছর নিজের দুই লাখ টাকা পুঁজি শেষ করে পাঁচ লাখ টাকার ঋণে পড়েছেন। তাঁদের বাঁচার উপায় নেই। তাই দোকান খুলতে বাধ্য হয়েছেন।

দোকান খুলে দিতে ব্যবসায়ী নেতারা বেলা ১১টায় রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। জেলা প্রশাসক তাঁদের ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ধৈর্য ধরতে বলেন। জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল বলেন, ব্যবসায়ীরা তাঁর কাছে প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেছেন। ২৮ এপ্রিলের পর সরকার লকডাউন শিথিল করলে তাঁরা ব্যবসা করার সুযোগ পাবেন। আজ দোকান বন্ধ করবেন।

তবে বিকেল ৩টা পর্যন্ত সাহেববাজার আরডিএ মার্কেটে এ ঘোষণা অনুযায়ী কোনো দোকানই বন্ধ করা হয়নি। পুলিশ দোকান খুলতে বাধা না দিলেও আরডিএ মার্কেটের সামনের রাস্তায় যানবাহন চলাচলে বাধা দিচ্ছে। তবে মার্কেটের পেছন দিক দিয়ে ক্রেতাদের ঢুকতে দেখা গেছে। শহরের মেইন মেইন মোড়ে ট্রাফিক পুলিশকে যানবাহন চলাচলে কড়াকড়ি করতে দেখা গেলেও শহরজুড়ে প্রচুর রিকশা-অটোরিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, ‘আরডিএ মার্কেট সকালে ব্যবসায়ীরা খুলেছিল। এরপর তাদের নেতৃবৃন্দদের সাথে প্রশাসনের মিটিং হয়েছে। তারা কথা দিয়েছেন, ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত তারা দোকান বন্ধ রাখবেন। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চলবেন। তাই আমরা সেখানে কোনো ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করিনি। আজকে তারা নিজেরাই বন্ধ করে দিবে। আগামীকাল শুক্রবার থেকে মার্কেট কেউ খুলবেন না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *