রিয়াজের পর কাঁদলেন নায়িকা নাসরিন, বললেন আম’রা বাঁচতে চাই

চলতি মাসের আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। এতে ইলিয়াস কাঞ্চন ও অ’ভিনেত্রী নিপুণ একটি প্যানেল গঠন করেছেন। অন্য প্যানেলে আছেন মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান। নির্বাচনকে ঘিরে উৎসবের আ’মেজ বিরাজ করছে চলচ্চিত্র পাড়ায়। এরমধ্যেই নায়ক রিয়াজের পর এবার এফডিসিতে কাঁদতে দেখা গেল একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা নাসরিনকে।

আজ বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি বিকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় কেঁদে ফেলেন তিনি। এবারের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ল’ড়ার কথা ছিল নাসরিনের। ঘোষণাও দিয়েছিলেন। কিন্তু পরক্ষণে সরে আসেন। এ বিষয়ে নাসরিন বলেন, খা’রাপ লাগা তো থাকবেই। কিন্তু আমা’র একার ক’ষ্টের চেয়ে সবার ক’ষ্টটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমা’র ক’ষ্টটা আমা’র মধ্যেই থাক। আমি চাই আমা’র ভাই-বোনের বিজয়, সবাই শান্তিতে থাকুক। সবাই কাজ করুক, ভালো থাকুক।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘কোনো প্যানেলকে নির্দিষ্ট করে বলতে চাই না। কারণ দুই প্যানেলেই আমা’র প্রিয় মানুষেরা আছেন। তবে হ্যাঁ, আমা’র ব্যক্তিগত চিন্তা তো আছেই, কাকে ভোট দেব।’

এ সময় কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘একটি কথা বলতে চাই, একাত্তরে যু’দ্ধ হয়েছিল। ইতিহাসটা তো সবার জানা। আম’রা সেই গর্বিত জাতি। নয় মাসে যু’দ্ধ করে এই দেশ স্বাধীন করেছিলাম। আমাদের কিন্তু পি স্ত ল-বো মা সেরকম ছিল না, লা’ঠিসোঁটা ছিল। মায়েরা বলেছে যা, যু’দ্ধ করে দেশ স্বাধীন কর। প্রয়োজনে যদি তোর জান দিতে হয়, আমি মা হিসেবে মেনে নেব। এখন আমি শিল্পী ভাই-বোনদের বলতে চাই, যাও তোম’রা স্বাধীন করো। আমাদেরকে স্বাধীন করো, আমাদের এফডিসিকে রক্ষা করো। আম’রা বাঁচতে চাই।’

এ সময় ইলিয়াস কাঞ্চনের নাম উল্লেখ করে কা’ন্না জড়ানো কণ্ঠে নাসরিন বলেন, ‘কাঞ্চন ভাইয়ের জন্য আমা’র অনেক দোয়া। এই মানুষটার সম্মান যেন আম’রা রাখতে পারি। আমি আর কারো কথাই বলছি না।’