রিং আইডির পর এবার এসপিসি ওয়ার্ল্ডের সিইও-নিরাপদ শপের পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩

রিং আইডির পর এবার এসপিসি ওয়ার্ল্ডের সিইও-নিরাপদ শপের পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩

অল্প কয়েক বছরের মধ্যে দেশের সবচেয়ে নামিদামি হাসপাতাল, মিল, ফ্যাক্টরি, কারখানা, গার্মেন্টসের অংশীদারত্ব হবে আপনার, পাশাপাশি আসবে নগদ টাকা। সদস্য সংখ্যা বাড়াতে পারলে সেই টাকার পরিমাণ কিছু দিনের মধ্যে পৌঁছে যাবে লাখের কোঠায়। ভুয়া একটি প্রতিষ্ঠানের এমডি ও সিইও এমন লোভ দেখিয়ে লাখ লাখ মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা।

এসব অভিযোগের ভিত্তিতে এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেসের সিইও ও এমডি আল-আমিন এবং নিরাপদ শপ নামে আরেকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের পরিচালকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।রোববার (৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) আজাদ রহমান।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে আগামীকাল (সোমবার) দুপুরে সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

Read More – আন্দোলনে সব স্তরের নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান

দলকে তৃণমূল পর্যায়ে অধিকতর শক্তিশালী করে দুঃশাসনের কবল থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করতে নেতাকর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনে সব স্তরের নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে। রোববার ময়মনসিংহ বিভাগীয় জেলা ও মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক পুনর্গঠন বিষয়ে জেলা ও মহানগর নেতাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ আহ্বান জানান দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স।

স্থানীয় এক হোটেলে বিএনপির ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকসহ নেত্রকোনা, শেরপুর, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ দক্ষিণ, ময়মনসিংহ উত্তর জেলা এবং ময়মনসিংহ মহানগর নেতাদের সঙ্গে দলের সাংগঠনিক পুনর্গঠনের অগ্রগতি ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় হয়।

সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্সের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল আলম, ওয়ারেস আলী মামুন, ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ড. মাহবুবুর রহমান লিটন, যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেন বাবলু, আলমগীর মাহমুদ আলম, ফখর উদ্দিন বাচ্চু, আখতারুল আলম ফারুক, ডা. মোফাখখারুল ইসলাম রানা, মাহবুবুল আলম, আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দ, নেত্রকোনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ডা. আনোয়ারুল হক, সদস্য সচিব ড. রফিকুল ইসলাম হিলালী, যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুল হক,

মনিরুজ্জামান দুদু, মির্জা ফারহানা রহমান হোসনা, লিটন আকন্দ, শেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হক রুবেল (ভার্চুয়াল সংযুক্ত), সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, সিনিয়র সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক ফরহাদ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রশীদ পলাশ, আবু রায়হান রুপম, আকরামুজ্জামান রাহাত, জামালপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শহীদুল হক খান দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান আহমেদ খান লিটন, কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি লায়লা বেগম, সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ইসরাইল মিয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।

মতবিনিময় সভায় জেলা ও মহানগর নেতারা নিজ নিজ ইউনিটের সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ময়মনসিংহ বিভাগের সব জেলা, পৌর, উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ইউনিটের সম্মেলন সমাপ্ত করার আহ্বান জানানো হয় সভায়। এছাড়াও ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোতাহার হোসেন তালুকদার, আহমেদ তাইয়্যেবুর রহমান হিরন কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।অ্যাডভোকেট নুরুল হকের নেতৃত্বে আইনজীবী ফোরামের নেতারাও সাক্ষাৎ করেন।

শেয়ার করুন