রাতে না ঘুমিয়ে সারা রাত কান্নাকাটি করেছেন পরী

রাতে না ঘুমিয়ে সারা রাত কান্নাকাটি করেছেন পরী

সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগ নিয়ে ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। বাসা থেকে পরীমনিকে বিদেশি মদ ও বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটকের পর র‌্যাবের প্রধান কার্যালয়ে নেওয়া হয়। চিত্রনায়িকা পরীমনিকে মধ্যরাত পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদের সময় নিজের ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার নিয়ে শঙ্কিত পরী কান্নাকাটিও করেছেন।

বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তাদে আবারও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকালে গ্রেফতার দেখায় র‌্যাব। পরে তাকে বনানী থানায় নিয়ে যায় র‌্যাব। র‌্যাবের এক কর্মকর্তা জানান, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পরীমণিকে সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখার একটি কক্ষে রাখা হয়।

সেখানে তার সঙ্গে একাধিক নারী র‌্যাব সদস্য পাহারায় ছিলেন। সারা রাত ঘুমাননি পরীমনি। রাতভর কান্নাকাটি করেছেন তিনি। র‌্যাবের কর্মকর্তারা জানান, বুধবার বিকালে অভিযানের সময় পরীমনির বাসায় প্রবেশ করা নিয়েই অনেক জটিলতা তৈরি হয়।

তিনি ভেতর থেকে বাসার দরজা খুলছিলেন না। প্রায় আধঘণ্টা পর দরজা খুলে দিলে র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার একটি দল তার বাসায় প্রবেশ করে। পরীমণি প্রথমে র‌্যাবের গোয়েন্দা দলের কাছে উচ্চ পর্যায়ে তার অনেক যোগাযোগের কথা বলেন। পরে তার বাসা থেকে বিদেশি মদ, আইস ও এলএসডি মাদক উদ্ধারের পর চুপসে যান তিনি। এরপর আভিযানিক দলের সদস্যদের সহযোগিতা করেন তিনি।

শেয়ার করুন