‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ প্রাইভেট কার, দামসহ বিস্তারিত জানুন

২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে বাংলাদেশে শুরু হতে যাচ্ছে গাড়ি উৎপাদন। প্রাথমিক ভাবে ২শ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ হলেও পর্যায়ক্রমে এই বিনিয়োগ ছাড়াবে প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে।

বর্তমানে গাড়ি কারখানার নির্মাণ কাজ চলছে চট্টগ্রামের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের ১শ একর জমির উপর। মূলত যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ইতালি এবং ভারতের প্রযুক্তি সহায়তায় বিভিন্ন ধরনের ট্রাক, পিক-আপ, সেডান কার, স্পোর্টস ইউটিলিটি ভেহিকল এবং মোটরসাইকেল তৈরি করা হবে এই কারখানায়।

বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান ‘বাংলাদেশ অটো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’ বিদেশি কোম্পানিগুলোর সাথে যৌথভাবে এই কারখানা নির্মাণ করছে।

গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল এই কারখানা চালু হলে প্রথমবারের মত দেশেই উৎপাদিত হবে একটি গাড়ির প্রায় ৬০% যন্ত্রাংশ। যার ভেতর রয়েছে চেসিস, লিথিয়াম ব্যাটারি, মোটর, সফটওয়্যার এবং বডি।

জানা গেছে, এখানে তৈরি করা গাড়িগুলোর মধ্য এসইউভির দাম পড়বে ২৫ লাখ টাকা। সেডান কারের দাম হবে ১২ থেকে ১৫ লাখের মত। এছাড়া মোটর সাইকেলগুলোর দাম পড়বে ৫০ হাজার থেকে দেড় লাখ টাকার ভেতর।

কোম্পানির মার্কেট রিসার্চ অনুযায়ী দেশে ২০২৫ সাল নাগাদ বছরে ৪ লক্ষ গাড়ি বিক্রির বাজার সৃষ্টি হবে। ইলেকট্রিক গাড়ির জন্য কোম্পানিটি ৫০ কিলোওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি তৈরি করবে যা ফুল চার্জ করতে হতে খরচ হবে মাত্র ৪শ টাকা। দেশের হাইওয়ে গুলিতে কুইক চার্জিং পয়েন্ট স্থাপন করা হবে। ব্যাটারির লাইফ ধরা হয়েছে ১০ বছর।

এখন পর্যন্ত মোটরসাইকেল তৈরির বেশ কয়েকটি কোম্পানি থাকলেও দেশে চার চাকার গাড়ি উৎপাদিত পণ্য তালিকায় নেই। আশা করা যাচ্ছে সকল আক্ষেপ হয়তো শীঘ্রই ঘুচে যাবে। ২০২১ সাল থেকেই বাজারে চলে আসবে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ গাড়ি।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: