ভারতীয় সেনাবাহিনী পৃথিবীতে সবচেয়ে শক্তিশালী: মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ভারতীয় সেনাবাহিনীই পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে সা’হসী এবং শক্তিশালী। যে প্রাকৃতিক পরিবেশে আপনারা এই অসম সাহসের পরিচয় দিচ্ছেন, তা সারা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে কঠিন। আপনারা বারবার প্রমাণ করেছেন যে ভারতীয় সেনাবাহিনীই পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে সাহসী এবং ক্ষমতাশালী।

শুক্রবার আচমকা লাদাখ পরিদর্শনে গিয়ে এই মন্তব্য করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি আরো বলেছেন, দুর্বলেরা নয়, শান্তির কথা বলতে পারেন বীরেরাই। ভারতীয় সেনাদের তিনি ‘দেশের মাটির বীর সেনা’ বলে উল্লেখ করেন। সেনাদের উদ্দেশ্যে মোদি বলেন,‘আপনাদের রাগ এবং বীরত্বের প্রমাণ শ’ত্র‌ুরা পেয়েছে।’

গত ১৫ জুন লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনের সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘ’র্ষে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ২০ সদস্য নি’হত হয়। শুক্রবার ১১,০০০ ফিট উচ্চতায় অবস্থিত লাদাখের রাজধানী লেহ-তে গিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী ও আইটিবিপি জওয়ানদের সঙ্গে কথা বলেন মোদি।

মোদি বলেন,‘ভারতীয় সেনার সাহস ও দেশের প্রতি তাদের ভালোবাসার কোনো তুলনা হয় না। দেশের মধ্যে এবং দেশের বাইরে বসবাসকারী প্রত্যেক ভারতীয় এই কথা বিশ্বাস করেন যে ভারতীয় সেনাবাহিনী দেশকে সুরক্ষিত রাখতে স’ক্ষম। আপনারা যে উচ্চতায় রয়েছেন, আপনাদের সাহসের উচ্চতা তার চেয়েও অনেক বেশি। যে পাহাড় আপনাদের ঘিরে রেখেছে, আপনাদের হাত তার থেকেও শ’ক্ত। আপনাদের আ’ত্মবিশ্বাস এবং আ’ত্মনিবেদন অটল হয়ে বিরাজ করছে।’শুক্রবার সকালে লাদাখে পৌঁছানোর পর মোদিকে স্বাগত জানাতে ‘বন্দেমাতরম’ এবং ‘ভারত মাতা কি জয়’ স্লোগান ওঠে।

ভারতীয় সেনাদের উদ্দেশ্যে মোদি আরো বলেন,‘ভারতের শত্রুরা আপনাদের (ভারতীয় সেনাবাহিনীর) প্র’ত্যাঘা’ত দেখেছ। এই পরিস্থিতিতে আপনারা নিজেদের সেরাটা দিয়েছেন। দুর্বলতা শান্তি আনতে পারে না। সাহসীরা পারে। আপনারা সেটাই করে দেখাচ্ছেন। বিশ্বের অন্য সব দেশের বাহিনীর চেয়ে ভারতীয় সেনারা শক্তিশালী সেটা প্রমাণ হয়েছে।

আমি আপনাদের প্রণাম করতে চাই। যারা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছে তাদের নমস্কার করতে চাই। লাদাখের সব নদী, সব স্রোত, সব নুড়ি জানে এটা ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ।’চীনের নাম না করে তিনি বলেন,‘বিস্তারবাদের যুগ শেষ। এখন বিকাশবাদের যুগ। বিস্তারবাদীরা শান্তি নষ্ট করে। জল, স্থল, অন্তরীক্ষে শক্তি বাড়িয়েছে ভারত। লাদাখ চক্রান্ত ব্য’র্থ করেছে ভারতীয় সেনা।’তার দাবি,‘লাদাখ ভারতের মাথা, সম্মানের প্রতীক।’

গত ১৫ জুন রাতে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত ও চীনা সেনার মুখোমুখি সংঘ’র্ষে এক কর্নেল-সহ ২০ ভারতীয় সেনা জওয়ান নি’হত হওয়ার পর সারা ভারত জুড়ে তীব্র চীনবিরোধী ‘মনোভাব’ তৈরি হয়েছে। লাদাখে দুই দেশের মধ্যে তৈরি হওয়া উত্তেজনার বিষয়ে গত সপ্তাহেই ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে মুখ খোলেন মোদি। সেখানে মোদি দাবি করেন- লাদাখ সীমান্তে চীনকে উপযুক্ত জবাব দিয়েছে ভারত।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: