ব্রাজিলিয়ান কিশোরের যে স্বপ্ন পূরণ করলেন মেসি

ব্রাজিলিয়ান কিশোরের যে স্বপ্ন পূরণ করলেন মেসি

কোয়ারেন্টিন ভাঙার অভিযোগ নিয়ে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা মাঠে উপস্থিত হওয়ার পরই জেগেছিল শঙ্কা। শেষ পর্যন্ত সেটাই সত্যি হয়েছে। স্থগিত হয়ে গেছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার লড়াই। লাতিন আমেরিকার ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থা কনমেবল এক টুইটে রোববার জানায়, ম্যাচ রেফারি স্থগিত করে দিয়েছে ফিফা আয়োজিত বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের এই ম্যাচ।

“ম্যাচ রেফারি ও ম্যাচ কমিশনার ফিফার শৃঙ্খলা কমিটির কাছে এ নিয়ে প্রতিবেদন দেবে। তার উপর ভিত্তি করে পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে। এই প্রক্রিয়া বর্তমান নিয়ম দৃঢ়ভাবে অনুসরণ করেই এগোবে।”“বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব ফিফার প্রতিযোগিতা। এ ব্যাপারে সকল সিদ্ধান্ত ক্ষমতা আছে কেবল ওই প্রতিষ্ঠানেরই।”

এদিকে আর্জেন্টিনা দল যখন মাঠ থেকে হোটেলে ফিরছিল, তখন হোটেলের সামনে আগে থেকেই ছিল ভক্ত-সমর্থকদের ভিড়। টিম বাস থেকে নেমে হোটেলে ঢোকার আগে ছোট প্যাসেজ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন মেসি। ঠিক তখনই নিরাপত্তাকর্মীদের কড়া প্রহরা ভেদ করে মেসির দিকে দৌড় শুরু করেন এক স্থানীয় কিশোর।

তবে পুরোপুরি মেসির সামনে যেতে পারেননি ১২ বছর বয়সী রোজারিও নামের সেই ছেলে। নিরাপত্তাকর্মীদের ঘোল খাওয়ানোর জন্য ফুটবল মাঠে ড্রিবল করার মতো আঁকাবাঁকা পথে দৌড় দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সফর হননি। মেসির কাছে পৌঁছানোর আগেই তাকে ধরে ফেলে নিরাপত্তাকর্মীরা।

পুরো ঘটনা চোখের সামনেই দেখছিলেন মেসি। যখন নিরাপত্তাকর্মীরা রোজারিওকে ধরে ফেলে, তখন মেসি নিজেই এগিয়ে যান সেদিকে। সেই ছেলের সঙ্গে সেলফিও তোলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। মেসিকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন ১২ বছর বয়সী রোজারিও।

পরে মেসির সঙ্গে তোলা সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে আপলোড করেছেন রোজারিও। তিনি লিখেছেন, ‘একটা স্বপ্ন সত্য হলো। আমি বেষ্টনী টপকে মেসির মতোই ড্রিবল করে গিয়েছি। আমি ম্যারাডোনার মতোই উচ্ছ্বসিত ছিলাম এবং জীবনের সবচেয়ে বড় স্বপ্ন পূরণ করলাম।’

শেয়ার করুন