বৃদ্ধ বাবাকে লাথি মারলেন শিক্ষক ছেলে

বৃদ্ধ বাবাকে লাথি মারলেন শিক্ষক ছেলে

পাবনার চাটমোহরে শিক্ষক ছেলের হাতে চরমভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন এক বাবা। বাবাকে লাথি মারাসহ লাঞ্ছিত করার ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এই ঘটনায় বাবার দায়ের করা মামলায় ছেলেটি এখন পুলিশ হেফাজতে আছেন। অভিযুক্ত ছেলের নাম মো. মজনুর রহমান।

মঙ্গলবার রাতে মামলাটি দায়ের করেন ওই বাবা। এর আগে গতকাল সকালে ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয়দের বরাতে জানা গেছে, চাটমোহর সরকারি আরসিএন অ্যান্ড বিএসএন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখার ট্রেড ইন্সট্রাক্টর মজনুর সকালে তার বাবার চাকরিস্থল যায়। সেখানে অফিসে ঢুকে বাবাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ

শুরু করেন। একপর্যায়ে অফিসের কাগজপত্র তছনছ করে সেখানকার মোবাইল ফোনটি বাবার কাছ থেকে জোর করে ছিনিয়ে নেন।পরে মোবাইল ফোনটি নিয়ে মোটরসাইকেলে উঠতে চাইলে বাবা বাধা দেন। তখন তিনি বাবাকে লাথি মারেন। এসময় বাবার সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি ও দস্তাদস্তিও করেন।পরে আশপাশের লোকজন এসে মজনুরকে নিবৃত করে পিটুনি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়।

ঘটনার পর ওই বাবাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে তিনি চাটমোহর থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন। এ সময় পুলিশ মজনুরকে ধরে থানায় নিয়ে আসে। রাত ১০টা পর্যন্ত উভয়ই থানায় অবস্থান করেন। পরে ছেলের নামে মামলা করেন বাবা।

এই ব্যাপারে চাটমোহর সরকারি আরসিএন অ্যান্ড বিএসএন উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুস ছালাম বলেন, বিষয়টি খুবই লজ্জাকর ও দুঃখজনক। একজন শিক্ষকের কাছ থেকে এমন আচরণ কাম্য নয়। বিষয়টি আমি ইউএনও স্যারকে জানিয়েছি।চাটমোহর থানার ওসি তদন্ত হাসান বাছির জানান, ছেলের বিরুদ্ধে বাবা মামলা করেছেন। আসামি থানায় আছে।দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

শেয়ার করুন