বিয়ের এক সপ্তাহের মাথায় সুখবর!

বিয়ের এক সপ্তাহের মাথায় সুখবর!

সম্প্রতি লকডাউনে আটকে বিয়ে নিয়ে ভালোই বিপাকে পড়েছিলেন প্রসূন আজাদ। অবশেষে ৩১ জুলাই অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে বিয়ের সানাইটি বাজলো তার!

বিয়ের ঠিক এক সপ্তাহের মাথায় এই তরুণ অভিনেত্রী পেলেন বড় সুখবর। লম্বা প্রতীক্ষার পর তার সিনেমা ‘পদ্মপুরাণ’ পেলো মুক্তির ছাড়পত্র। এটি নির্মাণ করেছেন রাশিদ পলাশ।

পলাশ বলেন, ‌‘এটা একটা যুদ্ধ ছিলো আমাদের জন্য। পদ্মানদীর চরে রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে শুটিং করেছিলাম আমরা। পুরো টিমের অকুণ্ঠ সহযোগিতা ছাড়া কোনভাবেই সম্ভব হতো না এ অসাধ্য সাধন। পুরো কৃতিত্ব টিমের। কোভিড পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে একটা ভালো দিনে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিতে চাই ছবিটি।’

পুণ্য ফিল্মসের প্রযোজনায় ছবিটির অন্যতম চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসূন আজাদ। এতে আরও আছেন শম্পা রেজা, সাদিয়া মাহি, সুমিত সেনগুপ্ত, কায়েস চৌধুরী, জয়রাজ, হেদায়েত নান্নু, সূচনা সিকদার, রেশমী, সাদিয়া তানজিন প্রমুখ।

রায়হান শশীর চিত্রনাট্যে ছবিটির চিত্রগ্রহণে ছিলেন রায়হান রশিদ জুয়েল, আর্ট ডিরেকশনে সুশান্ত, পোশাক পরিচ্ছদে ওয়াসিফ আহমেদ, হেড অব ক্রিয়েটিভ রয় সন্দীপ মিঠু, সম্পাদনায় আশরাফুল আলম আর সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন জাহিদ নিরব।

রাশিদ পলাশের প্রথম চলচ্চিত্র ‌‘নাইওর’। সম্প্রতি তিনি পরীমণিকে নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন ‘প্রীতিলতা’ নির্মাণ ইস্যুতে।

প্রসূন আজাদ ২০১২ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেন। তার আগেই গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘অবগুণ্ঠন’ নাটকে কাজ করার মাধ্যমে অভিনয় জগতে অভিষেক ঘটে তার। প্রসূন এখন পর্যন্ত পাঁচটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। প্রথম চলচ্চিত্র ‘অচেনা হৃদয়’ মুক্তি পায় ২০১৪ সালে। সর্বশেষ ২০১৯ সালে অভিনয় করেন নুরুল আলম আতিকের ‘মানুষের বাগান’-এ।

শেয়ার করুন