বিগো লাইভ, টিকট’ক, লাইকি নিষিদ্ধ চেয়ে হাই’কোর্টে রিট

মোবাইল অ্যাপস বিগো লাইভ, টিকট’ক, লাইকি বন্ধ/নিষিদ্ধে হাই’কোর্টে রিট করা হয়েছে। বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সংশ্লিষ্ট শাখায় জনস্বার্থে এ রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জে আর খাঁন (রবিন)।

রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, তথ্য সচিব, পু’লিশ মহাপরিদর্শক ও বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে বিবাদী করা হয়েছে।

রিট’কারী আইনজীবী জানান, এই অ্যাপসগুলোর ফলে যুবসমাজ বিপথে যাচ্ছে। টিকট’কের ফাঁদে পড়ে অনেকের ভবিষ্যৎ নষ্ট হচ্ছে। এসবকে কেন্দ্র করে অ’প’রাধ প্রবণতাও বাড়ছে।

এর আগে গত ৮ অক্টোবর বিগো লাইভ, টিকট’ক ও লাইকি নামক মোবাইল ফোন অ্যাপ ব্যবহারে তরুণ প্রজন্ম বিপথগামী হওয়ায় এসব অ্যাপ বন্ধ বা নিষিদ্ধ ঘোষণা করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য একটি আইনি নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জে আর খান রবিন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযু’ক্তি মন্ত্রণালয় সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয় সচিব এবং বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে এ নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশের জবাব না দেয়ায় আজ এ রিটটি দায়ের করা হয়।

নোটিশের বিষয়ে আইনজীবী জে আর খান বলেন, এসব অ্যাপের ব্যবহার তরুণ প্রজন্মকে বিপথগামী করছে। নষ্ট হচ্ছে নৈতিকতা, সামাজিক মূল্যবোধ ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ। তরুণ ও কি’শোররা গ্যাংয়ে জড়িয়ে অ’প’রাধমূলক কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে, হয়ে উঠছে সহিং’স। এই আ্যপসের মাধ্যমে সস্তা জনপ্রিয়তা অর্জন করতে চায় এবং নিজেকে জনপ্রিয় ভাবতে শুরু করে।

বিগো-লাইভ আ্যপের মাধ্যমে তরুণ ও যুবকদের টার্গেট করে লাইভে এসে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি ও কু’রুচিপূর্ণ প্রস্তাব দিয়ে এবং যৌ’নতার ফাঁদে ফেলে কৌশলে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে কাড়ি কাড়ি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়। এই অ্যাপের ক্ষতিকর দিক বিবেচনা করে ভা’রত ও পা’কিস্তান এই আ্যপটি নিষিদ্ধ করেছে।

টিকট’কের মাধ্যমে অনেক কি’শোর-তরুণ উদ্ভট রঙে চুল রাঙিয়ে এবং ভিনদেশী অ’পসংস্কৃতি অনুসরণ করে ভিডিও তৈরি করছেন, যাতে সহিং’স ও কু’রুচিপূর্ণ কনটেন্ট থাকে। উদ্বেগজনক যে এ টিকট’ক ভিডিওগুলোতে নেই কোনও শিক্ষণীয় বার্তা। উল্টো এসব ভিডিওর মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মের কাছে ভুল বার্তা চলে যাচ্ছে। বিব্রতকর, অ’নৈতিক ও প’র্নোগ্রাফিকে উৎসাহিত করায় ইতোমধ্যে ভা’রত, পা’কিস্তান, ইন্দোনেশিয়ায় ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে।

নোটিশকারী আরও বলেন, সিঙ্গাপুরভিত্তিক এ শর্ট ভিডিও তৈরি এবং শেয়ারিং প্ল্যাটফর্মে গিয়ে তরুণ প্রজন্ম অশ্লীল ভিডিও ছড়াচ্ছে। তাই জনস্বার্থে পাঠানো এই নোটিশ অনুসারে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে এ নোটিশ প্রেরণ করা হলো।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: