Breaking News

বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে ভু-লেও এই দশ ভু-ল কখনো করবেন না, জী-বন শে-ষ হয়ে যেতে পারে, সা-বধান!

দু-র্ঘ-ট-না কখনো আগে থেকে খবর জানিয়ে আসে না। তবে আমরা দু-র্ঘ-ট-নার হাত থেকে বাঁ-চার জ-ন্য অবশ্যই সর্তকতা অবলম্বন করতে পারি সঠিকভাবে।আশেপাশে আমরা প্রায়শই গ্যা-স দু-র্ঘ-টনা সং-ক্রা-ন্ত বিভিন্ন খবর পেয়ে থাকি।অনেক মানুষের প্রা-ণ-হা-নিও হয় কিন্তু তাও আমরা খুব কম জনই স-তর্ক হ-ই।আসলে খুব ছোট ব্যাপার ভেবে আমরা উপেক্ষা করে যাই কিছু জিনিস কে।কিন্তু যদি আপনি নিজের এবং পরিবারের জন্য চি-ন্তিত হ-ন তাহলে আমাদের এই প্রতিবেদনটি নজরে রাখুন।

প্রথমত,গ্যাস সিলিন্ডারের সঙ্গে যে রবার পাইপ টি থাকে তাতে বিএসটিআই ছাপ থাকা বা-ধ্যা-তা-মূলক,সঙ্গে এও লক্ষ্য রাখতে হবে যাতে পাইপটি যেনো এক থেকে দেড় ফুটের বেশি লম্বা না হয়। রেগুলেটরের নজেল টি যাতে পাইপ দিয়ে ভালো করে ঢাকা থাকে কিনা সে বিষয়ে সচেতন হন।একটি ছোট্ট সর্তকতা আপনার জীবন রক্ষায় সাহায্য করবে।

দ্বিতীয়ত,গ-রম বার্না-রের সং-স্পর্শে যাতে গ্যাসের পাইপ না আসে।কিছু বছর অন্তর অন্তর পরপর পাইপটি বদলাতে থাকবেন।পরিষ্কার রাখার জন্য পাইপটিকে কোনো রকম কাপড় দিয়ে মুড়ে রাখবেন না।জল দিয়ে নিয়মিত পরিষ্কার করুন।গ্যাস লিক হয়ে বেরোচ্ছে বুঝতে পারলে বাড়ির ইলেকট্রিক জিনিস চালু করবেন না।রেগুলেটর অফ করে দরজা জানলা খুলে দেবেন।

তৃতীয়ত,যদি গ্যা-স বে-রনো ব-ন্ধ না হয় তাহলে তাড়াতাড়ি গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন অফিসে খবর দিন।খালি সিলিন্ডার থেকে রেগুলেটর খোলার সময় আশপাশে আগুনের কোনো জিনিস রাখবেন না।দুটো সিলিন্ডার একসাথে রাখলে দূরত্ব মেনে রাখুন।ওভেনের ওপর যাতে সহজেই হাওয়া না লাগে এই বিষয়েও নজর রাখবেন।উল্লিখিত নিয়ম গুলি মেনে চললে গ্যাস সিলিন্ডার সংক্রান্ত অ-গ্নি-কা-ণ্ডের হাত থেকে অনেকটাই রেহাই মিলবে। সা-ব-ধান এবং স-তর্ক থেকে নিজেকে সুস্থ রাখুন।

শেয়ার করুন

Check Also

হঠাৎ করে হাত-পায়ে ঝি-ঝি লাগে বা অবশ হয়ে যায় ? মা’রা’ত্ম’ক রো’গে’র ইঙ্গিত !

আপনার কি হঠাৎ হঠাৎ হাত পায়ে ঝি-ঝি লেগে যায়? মানে ধরুন অনেক্ষণ কোথাও বসে আছেন, …