বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম জয়ের খুশিতে যা বললেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম জয়ের খুশিতে যা বললেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক

অবশেষে জয়ের দেখা পেল অস্ট্রেলিয়া। টানা তিন ম্যাচ হেরে সিরিজ হারানোর পর ঘুরে দাঁড়াল অসিরা।

মিরপুর শেরেবাংলায় সন্ধ্যা ৬ টায় সিরিজের ৪র্থ ম্যাচে ফেভারিট হিসেবেই নামে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের ছোড়া ১০৫ রানের মামুলি টার্গেটে পৌঁছুতে ৭ উইকেট হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ৬ বল হাতে রেখে ৪র্থ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ৩ উইকেটে জিতল ম্যাথিউ ওয়েডের দল। ফলে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে রইল স্বাগতিক বাংলাদেশ।

অস্ট্রেলিয়ার এ জয়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতাই মূলত দায়ী। পরে বোলিংয়ে এক ওভারে ৫ ছক্কা দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার জয়কে সহজ করে দেন সাকিব আল হাসান।

অবশেষে লম্বা দীর্ঘশ্বাসটা ছেড়ে মুখে হাসি আনতে পারেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ম্যাথিউ ওয়েড।

ম্যাচ শেষে সে কথাই জানালেন। বললেন, ‘গত তিন ম্যাচে আমরা ঘাম ঝরা শ্রম দিয়েছি। কিন্তু ফলাফল আমাদের পক্ষে যায়নি। তবে আজকের পরিশ্রম কাজে দিয়েছে। ড্যান ক্রিশ্চিয়ান যে পারফরম্যান্স দেখিয়েছে, তাতেই জয়-পরাজয়ের পার্থক্যটা গড়েছে। জয়ে ফিরতে আমাদের টপঅর্ডারের ব্যাটসম্যানদের রান দরকার ছিল, যা ম্যাচভাগ্য বদলাতে পারে। আগের তিন ম্যাচ পরাজয়ের পর ম্যানেজমেন্ট আর স্টাফরা মিলে আলোচনা করেছি। এর থেকে উত্তোরণে উপায় খুঁজেছি। আমরা পিচ থেকে রান খুঁজছিলাম। ’

ম্যাথিউ ওয়েড আরো বলেন, ‘ব্যাটসম্যানদের রানে ফেরাটা খুবই কষ্টকর এখানে। তাই পরিকল্পনা অনুযায়ী, আজ আমরা ড্যানকে প্রথমে পাঠিয়েছি। তবে এটা খুবই আশার খবর হতো যদি খেলোয়াড়রা রান পেত। আমিও খুশি হতাম। কিন্তু সেভাবে রান পাইনি আমরা। তবে বিষয়টা এমন নয় যে, আমরা বাজে ব্যাটিং করেছি।

তবে এই উইকেটে রান পেতে আরো একটি সুযোগ আমাদের হাতে আছে। অর্থাৎ পরবর্তী ম্যাচে আমি ব্যক্তিগতভাবে ও গোটা দলের ব্যাটসম্যানরা রান করার চেষ্টা করব। আমরা দ্রুত ৩০-৪০ রান তোলার চেষ্টা করব। আসলে এই সিরিজে ছড়ি ঘুরাচ্ছে বোলাররা। পরবর্তী ম্যাচে আমরা তিনজন স্পিনার নিয়ে একাদশ সাজাব।’

শেয়ার করুন