বাংলাদেশি পণ্য নিচ্ছে না ভারত, প্রতিবাদে ভারতীয় পণ্য আমদানি বন্ধ

বাংলাদেশ থেকে রফতানি পণ্য গ্রহণ করছে না ভারত। প্রতিবাদে বুধবার (১ জুলাই) সকাল থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতীয় পণ্য আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে বন্দর ব্যবহারকারী সংগঠনগুলো। ফলে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় শতশত পণ্য বোঝাই ট্রাক আটকা পড়েছে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে। সিএন্ডএফ এজেন্ড কর্মচারীরা ও ভারত বাংলাদেশি রফতানি পণ্য গ্রহণ না করলে আমদানি বাণিজ্য বন্ধের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে।

জানা গেছে, বেনাপোল বন্দরে আটকা পড়েছে ৫০০ ট্রাক রফতানি পণ্য। গত তিন মাস ধরে এসব ট্রাক আটকে আছে বেনাপোল বন্দরে। দীর্ঘ ৩ মাস বন্ধ থাকার পর গত ৭ জুন বোনপোল বন্দর দিয়ে আমদানি বাণিজ্য চালু হলেও রফতানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে।

ভারত সরকার ও সে দেশের ব্যবসায়ীরা ভারতীয় পণ্য বাংলাদেশে ঢোকার অনুমতি দিলেও বাংলাদেশি রফতানি পণ্য ভারতে প্রবেশের অনুমতি দিচ্ছে না। বেনাপোল চেকপোষ্ট এলকায় রফতানি পণ্যর গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকায় তৈরি পোশাক, গার্মেন্টস পণ্য ও পাটজাত পণ্যসহ বিভিন্ন পণ্য থাকায় রোদ বৃষ্টিতে ভিজে পুড়ে নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ মফিজুর রহমান সজন জানান, ভারত আমদানি পণ্য দিলেও তারা বাংলাদেশি রফতানি পণ্য গ্রহন করছেন না।

যার জন্য রফতানি কারক ব্যবসায়ীরা ভারত থেকে আসা আমদানি বাণিজ্য বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে। সকাল থেকে ভারত থেকে কোন আমাদানি পণ্য বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। বাংলাদেশি রফতানি পণ্য ভারতে ঢুকতে না পেরে মোটা অংকের ট্রাক ডেমারেজ গুনতে হচ্ছে রফতানি কারকদের। বেনাপোল কাস্টমস এর কার্গো শাখার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা শামিমুর রহমান বলেন, রফতানি পণ্য ভারত গ্রহণ না করায় বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা আমদানি বাণিজ্য বন্ধ ঘোষণা দেয়। যার জন্য সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে আমদানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: