বর্তমান ও প্রাক্তন স্ত্রীর প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অপূর্ব

বর্তমান ও প্রাক্তন স্ত্রীর প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অপূর্ব

সাম্প্রতিক পারিবারিক ভাবে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। কনে বাংলাদেশ বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক শাম্মা দেওয়ান। এটি অপূর্বের তৃতীয় বিয়ে। গত ১ সেপ্টেম্বর বিয়ে আর ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে সীমিত পরিসরে সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

এর মধ্যে নেটিজেনদের মধ্যে উঠে নানা তর্ক-বিতর্ক। যার সূত্রপাত ঘটে অপূর্বর প্রাক্তন স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতির সূত্র ধরে। কারণ অপূর্বর বিয়ের দিন অদিতি এক ফেসবুক পোস্টে জানান, অপূর্ব-শাম্মার এই বিয়ে চার বছরের পরকীয়ার ফসল! অন্যদিকে প্রকাশ্যে আসে, অপূর্ব-অদিতির বিচ্ছেদের পরপরই অদিতি বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন। আর সেটি ছিল অদিতির পরকীয়ারই ফসল! এমনকি অপূর্ব-অদিতির সংসারও ভাঙে এই প্রেমের কারণেই!

এমন কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি বন্ধ করার প্রয়াসে এবার মুখ খুললেন অপূর্ব। এক ফেসবুক পোষ্টে এই অভিনেতা বলেন, ‘আমার সমস্ত ভক্ত, দর্শক ও শুভানুধ্যায়ীদের আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি, আমি আমার জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করেছি। শাম্মা দেওয়ান আমার স্ত্রী, তাকে নিয়েই আমার এই যাত্রা।

আমার এই নতুন জীবনের শুরুতে আপনাদের ভালোবাসা আমাকে আপ্লুত করেছে। কিন্তু আমার এবং শাম্মার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে কিছু কিছু অমুলক মন্তব্য আমার নজরে এসেছে যা সম্পূর্ণরূপে অসত্য ও ভিত্তিহীন।’

পরকীয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে এই নায়ক বলেন, ‘আমার এবং আয়াশের মায়ের আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয়ে গেছে ২০১৯ সালে যদিও তা গণমাধ্যমে পরে প্রকাশিত হয়েছে। খুব স্বাভাবিকভাবে আমরা এই বিষাদময় অধ্যায়ের পর সময় নিয়েছি, ভেবেছি এবং নিজ নিজ পরিবারের সঙ্গে আলাপেও গেছি। আমরা দু’জনই প্রাপ্ত বয়স্ক। আমরা একজন আরেকজনের প্রতি পূর্ণ সম্মান রেখেই আমাদের নিজেদের জীবন পথ বেছে নিয়েছি।

তবে আমি খুবই দুঃখের সঙ্গে লক্ষ্য করেছি, আয়াশের মায়ের নতুন জীবনের সংবাদ প্রকাশের পর অনেকেই তাকে অপবাদ দিয়েছেন এই বলে যে, তিনি নাকি পরকীয়া করে বিয়ে করেছেন। আমি এটি নিশ্চিত করে বলতে চাই যে, এই ধরনের তথ্য একেবারেই মিথ্যা। আমাদের সবাইকে আপনারা আপনাদের প্রার্থনা ও শুভকামনায় রাখবেন। ভালোবাসা রইল…’

২০১০ সালের ১৪ জুলাই অপূর্ব- নাজিয়া হাসান বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের একমাত্র সন্তান আয়াশ। এই সংসারের বিচ্ছেদ হয় ২০১৯ সালে। এরপর চলতি বছরের জানুয়ারিতে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন নাজিয়া। ৮ মাস পর অপূর্বও খুঁজে নেন তার নতুন জীবন।

শেয়ার করুন