প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ করলো বৃদ্ধ!

ফরিদপুরের সালথায় শারীরিক প্রতিবন্ধী ২৩ বছরের এক যুবতীকে গোয়াল ঘরে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় রশিদ মুন্সী (৫০) নামের ওই বৃদ্ধকে আটক করেছে সালথা থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) গভীর রাতে উপজেলার আটঘর ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে সালথা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা ও ধর্ষিত যুবতীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিতার বাবা একজন রিক্স চালক। প্রতিদিনের মত সকালে তিনি রিক্সা চালাতে ফরিদপুর শহরে যান। বাড়িতে ওই প্রতিবন্ধী মেয়ে ও তার মা ছিলেন। বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ওই প্রতিবন্ধীকে বাড়িতে একা রেখে তার মা ছাগল চড়াতে বাড়ির পাঁশে মাঠে যায়। এই সুযোগে বাড়িতে একা পেয়ে প্রতিবন্ধী ওই যুবতীকে ফুঁসলিয়ে গরুর থাকার গোঁয়াল ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত বৃদ্ধ। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ঘটনাটি ধাঁমাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। তাদের চেষ্টায় মীমাংসা না হলে ধর্ষিত প্রতিবন্ধীর বাবা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

সালথা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সুব্রত গোলদার বলেন, ২৩ বছরের এক প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক বৃদ্ধকে আটক করে বুধবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। ধর্ষিত প্রতিবন্ধীকে উদ্ধার করে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন