পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে উজ্জ্বল ধূমকেতু, দেখা যাবে খালি চোখে

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক : ধূমকেতু মহাকাশের এক আজব বস্তু। মাঝেমধ্যেই আমাদের আকাশে ধূমকেতু উদয় হয়। কিছুদিন পর আবার তা হারিয়েও যায়। দেখতে অনেকটা ঝাঁটার মতো। কারো কারো আবার লেজ আছে। লাস্যময়ী রোমাঞ্চকর রূপ নিয়ে এবার তীব্র গতিবেগে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে আরেকটি ধূমকেতু। তার আলোর ছটার পরিধি কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ। তবে সে শীতল। সে একাই নিজের খেয়াল-খুশিতে ঘুরে বেড়ায় মহাকাশে।

দীর্ঘদিন সূর্যের প্রেমে হাবুডুবু খেয়ে তার চারপাশেই চক্কর কাটছিল। এখন তার লক্ষ্য পৃথিবী। দুরন্ত গতিতে সে পৃথিবীর দিকে এগিয়ে আসছে। তার রূপ দেখে স্তম্ভিত মহাকাশবিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানের খাতায়-কলমে ধূমকেতুটির নাম সি/২০২০ এফ৩। নাম ‘নিওওয়াইস’।

যাযাবর হয় এ ধরনের ধূমকেতু। এক জায়গায় বেশিদিন থাকে না। অজানা উদ্দেশে ছুটে বেড়ায় মহাকাশে। সৌরমণ্ডলে তাদের খুব একটা দেখা যায় না। তবে মাঝে মাঝেই উদয় হয় এরা। আর তখনই তাদের নিয়ে চর্চায় মাতেন বিজ্ঞানীরা। আর আমজনতা একঝলক তাকে দেখার জন্য মহাকাশে হন্যে হয়ে খুঁজতে থাকে। এবার ‘নিওওয়াইস’কে নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞানীমহলে। উজ্জ্বল আলোয় আলোকিত হবে উত্তর গোলার্ধের মহাকাশ।

এখন প্রশ্ন-কবে দেখা যাবে এই লাস্য়ময়ী ধূমকেতু নিওওয়াইসকে? খুব দেরি নেই। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ১৪ জুলাই মহাকাশে স্পষ্ট হয়ে জ্বলজ্বল করে উঠবে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইস’। এরপর একটু একটু করে এগিয়ে আসবে নিজের রূপের ছটা দেখাতে। ২২ থেকে ২৩ জুলাই আরো রূপসী হয়ে উঠবে ধূমকেতু।

তবে এই ধূমকেতুর বংশপরিচয় জানেন না বিজ্ঞানীরা। সে সূর্যের মায়া ত্যাগ করে এখন পৃথিবীর প্রদক্ষিণ লক্ষ্যে নিয়োজিত। তবে এই ধূমকেতুর সৌরমণ্ডল ঘুরে দেখার আঁচ মার্চ মাসেই পেয়েছিলেন বিজ্ঞানী মহল। তাঁরা জানিয়েছেন, উত্তর আকাশে খালি চোখে দেখা যাবে নিওওয়াইসকে। জানা যাচ্ছে, পাথর, গ্যাস আর বরফে তৈরি আগমনী ধূমকেতুকে। তার শরীরে রয়েছে পরিমণ্ডল।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: