পুরুষের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকটাই বাড়িয়ে দেন সুন্দরী মহিলারাই! দাবি গবেষণায়

পথে-ঘাটে কোনও সুন্দরী মেয়েকে দেখলে অধিকাংশ ছেলেদের মনের ভিতরটা হু হু করে ওঠে! সুন্দরী মেয়ে দেখলেই বুকের ভিতরটায় ‘উথাল পাথাল’ হওয়ার অনেক ঘটনা আমরা সিনেমার পর্দায় দেখেছি।

তবে বাস্তবেও যে এমন অনেকের সঙ্গেই হয় তা আমরা জানি, বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে আড্ডায় সে কথা স্বীকারও করেন অনেকে। তবে এ বিষয়ে এখনই সংযত হওয়া জরুরি। কারণ, স্পেনের একদল গবেষকদের দাবি, সুন্দরী দেখলেই বেশিরভাগ ছেলেদের যে ভাবে বুক ধড়ফড় করা বেড়ে যায় তাতে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়!

বছর খানেক আগে WebMD-এর একটি প্রতিবেদনে এ সম্পর্কে প্রথম জানা যায়। এই প্রতিবেদনে স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জানিয়েছেন, সুন্দরী মেয়েরা সামনে এলে ছেলেদের মানসিক চাপ বেড়ে যায় অনেকটাই। অপরিচিত সুন্দরী মেয়েদের ক্ষেত্রেই মানসিক চাপ বৃদ্ধির এই প্রবনতা বেশি। দীর্ঘ ৯ বছরের গবেষণার পর তাঁরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন। এই গবেষকদের দাবি, এই মানসিক চাপ কখনও কখনও এতটাই বেড়ে যায় যে, তার ফলে হার্ট অ্যাটাক পর্যন্ত হতে পারে!

ভ্যালেন্সিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানান, ৮৪ জন স্বেচ্ছাসেবক পুরুষের ওপর টানা ৯ বছর ধরে গবেষণা চালিয়ে তাঁরা দেখেছেন সুন্দরী মেয়েরা কাছে আসার ৫ মিনিটের মধ্যেই ছেলেদের হৃদস্পন্দনের গতি অনেকটাই বেড়ে যায়। এই ৫ মিনিটের মধ্যেই ছেলেদের শরীরে ‘কোর্ট্রিসল’ নামের বিশেষ হরমোনের নিঃসরণ অনেকটা বেড়ে যায়। এই ‘কোর্ট্রিসল’ হরমোনের মাত্রাতিরিক্ত নিঃসরণের প্রভাবে আমাদের হৃদযন্ত্রের ক্ষতির আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়। একই সঙ্গে ডায়াবেটিস বা নানা রকম স্নায়বিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। সুতরাং, সুন্দরী মেয়েদের দেখলেই সতর্ক ভাবে সংযত হওয়া জরুরি।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: