পুতিনের প্রস্তাবে রাজি জেলেনস্কি

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রস্তাব গ্রহণ করে শান্তি ও যুদ্ধবিরতির জন্য আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রুশ বার্তা সংস্থা টাসের এক প্রতিবেদনে এই দাবি করা হয়েছে।

ইউক্রেন প্রেসিডেন্টের প্রেস সেক্রেটারির শনিবারের বিবৃতির বরাত দিয়ে টাসের প্রতিবেদনে বলা হয়, বৈঠকের স্থান ও সময় নিয়ে আলোচনা চলছে। যত তাড়াতাড়ি আলোচনা শুরু হবে, তত দ্রুত স্বাভাবিক জীবন শুরু করা যাবে।

এর আগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের প্রেস সেক্রেটারি দিমিত্রি পেসকভ বলেছিলেন, ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনার জন্য মিনস্কে প্রতিনিধিদল পাঠাতে প্রস্তুত প্রেসিডেন্ট পুতিন। কিন্তু ইউক্রেনের পক্ষ থেকে আলোচনার স্থান হিসেবে পোল্যান্ডের শহর ওয়ারশকে প্রস্তাব করা হয়। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। ইউক্রেনে চলমান রুশ অভিযানের তৃতীয় দিনেই আলোচনার শর্ত এক অর্থে মেনে নিলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

এর আগে বৃহস্পতিবার পূর্ব ইউরোপে রুশভাষীদের ওপর ইউক্রেনীয় সেনাদের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ এনে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দেশটিতে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন। তার ঘোষণার পরপরই রুশ সেনারা উত্তর-পূর্ব ও ক্রিমিয়া দিয়ে ইউক্রেনে প্রবেশ করে। অভিযানের তৃতীয় দিনে তারা রাজধানী কিয়েভে পৌঁছে যায়। সর্বশেষ তথ্য মতে, কিয়েভ বাঁচাতে লড়ছিল ইউক্রেনের সেনারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.