পিকনিকের বাস ও ট্রাকের ভয়াবহ মুখোমুখি সংঘর্ষ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পিকনিক বাসের সাথে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাস চালকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত মীর আহমদ (৩৫) দুর্ঘটনাকবলিত সৌদিয়া পরিবহনের চালক। এসময় বাসের ১৪ যাত্রী আহত হন, যারা কক্সবাজারে পিকনিকে যাচ্ছিলেন।

তাদের মধ্যে আশঙ্কাজনক ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। অপর আহতদের মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রিস্টান হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় চকরিয়ার ডুলাহাজারার পাগলিরবিল এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত বাস চালক মীর আহমদের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া উপজেলায় বলে জানা গেছে।

আহতদের উদ্ধৃতি দিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌরসভা থেকে অন্তত ৪০ জন বিভিন্ন বয়সী লোক পিকনিক করতে সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাসে করে কক্সবাজার যাচ্ছিল। বাসটি চকরিয়ার পাগলিরবিল নামক স্থানে পৌঁছলে হঠাৎ টায়ার পাংচার হওয়ার বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে সৌদিয়া বাসটি সড়কের উপর উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় সৌদিয়া বাসের চালক সাতকানিয়ার মীর আহমদ (৩৬)। এসময় পিকনিক বাসের আরো ১৪ জন আহত হন।

মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশের পরিদর্শক মোহাম্মদ সাফায়েত হোসেন দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনা কবলিত বাস ও ট্রাক আমাদের জিম্মায় রয়েছে। গুরুতর আহত ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। অপর আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় মালুমঘাট মিশনারী হাসপাতালসহ চকরিয়ার বিভিন্ন হাসপাতালে দ্রুত ভর্তি করা হয়েছে।