নীল শাড়িতে ছাত্রছাত্রীদের সামনেই তুমুল নাচলেন কলেজের শিক্ষিকা, ভিডিও ভাইরাল

আমাদের জীবনের এখন এক অপরিহার্য অঙ্গ হয়ে উঠেছে মুঠোফোন। আর এই মুঠোফোনের দুনিয়ায় মাঝে মাঝেই বিভিন্ন ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়।

এখন কমবেশি আট থেকে আশি সবাই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে। সেইসাথে লকডাউন চলাকালীন সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার বেড়েছে অনেক গুণে।

মানুষ তার সময় অতিবাহিত করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্য নিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেকেই তাদের নাচ গানের ভিডিও করে পোস্ট করে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে যেকোন ভিডিও হঠাৎ করে বেশ ভাইরাল হয়ে উঠতে পারে। তবে নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা সোশ্যাল মিডিয়াতে একটু বেশি একটিভ থাকে।

এই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয় বেশ কিছু জিনিস। তার মধ্যে কিছু কিছু ভিডিও অথবা ছবি আমাদের হতভম্ব করে তোলে। হাসি-কান্না, রাগ-অভিমান সবকিছু আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তুলে ধরতে পারি।

এবার কোন ভিডিও নেটিজেনদের ভালো লেগে গেলে সেই মানুষ রাতারাতি হয়ে যায় স্টার। সোশ্যাল মিডিয়া কোন মানুষের কাছে কত পয়সা আছে তা দেখে না।

কোন মানুষের কাজ কতটা ভালো সেটা দেখে। আবার কখনো কখনো মানুষ সাধারণত ভিডিও পোস্ট করলেও তার জনপ্রিয়তার শিখরে উঠে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া কোন কিছুর ওপর নির্ভর করে না।

কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা নেটিজেনদের মনে গেঁথে গেছে। আমাদের দেশে টিচার ও ছাত্র-ছাত্রীদের সম্পর্কটা বেশ পবিত্র।

অনেক শিক্ষক বা শিক্ষিকা তাদের ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে খুব বন্ধুত্ব পরায়ণ হয়। নিজেদের ছাত্রছাত্রীকে তারা ছেলে বা মেয়ের চেয়ে কম কিছু ভাবে না।

সম্প্রতি একটি ভাইরাস ভিডিওতে দেখা গেছে কলেজের একজন শিক্ষিকা ক্লাস রুমের মাঝখানে নাচ করছে। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রস্তুতি ব্যাপক ভাইরাল হয়ে গেছে।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গেছে কলেজের শিক্ষিকা টিপ টিপ বারসা পানি গানে উদ্দাম নাচছেন। গানের তালে তালে কোমর দোলানো ও মুখের অঙ্গভঙ্গি মুগ্ধ করেছে নেটিজেনদের।

ক্লাসে উপস্থিত বাকি ছাত্রীরা তাদের শিক্ষিকাকে নাচার জন্য হাততালি দিয়ে উৎসাহ দিয়েছে। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হতেই ব্যাপক ভাইরাল হয়ে যায়।

সচরাচর শিক্ষিকারা ছাত্র-ছাত্রীদের শাসন করতে দেখা যায়। কিন্তু এই ভিডিওতে ওই শিক্ষিকা তার ছাত্রীদের সাথে এতটাই বন্ধুত্ব পরায়ণ যে তাদের সাথে নাচ করতে অব্দি রাজি হয়ে গেছে।

ছাত্রী ও শিক্ষিকার এমন ভালো বন্ধুত্বের নিদর্শন নেটিজেনদের মনে দাগ কেটেছে। ইতিমধ্যে ভিডিওটি প্রায় ১২ হাজার বার শেয়ার হয়েছে এবং ভিডিওতে লাইক এর সংখ্যা ২.৫ লাখ এর কাছাকাছি।

শেয়ার করুন