নিউজিল্যান্ডকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ

টস জিতে আগে ব্যাট করে মন্থর পিচে নিউজিল্যান্ডকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। কিউইদের লক্ষ্য ১৪২। লিটন-নাঈম ও মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে ভর করে নির্ধারিত ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান করে টাইগাররা। মাহমুদউল্লাহ অপরাজিত ছিলেন ৩২ বলে ৩৭ রান করে। শেষ বলে আউট হওয়ার আগে নুরুল হাসান করেন ৯ বলে ১৩ রান।

এদিকে ইনিংসের শুরুতে বাঁ হাতি স্পিনার এজাজ প্যাটেলকে দিয়ে আক্রমণ শুরু করে নিউজিল্যান্ড। আগের কয়েক ম্যাচের তুলনায় আজ মোটামুটি সাবলীলভাবে ব্যাট চালিয়েছেন বাংলাদেশের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান লিটন ও নাঈম।

পাওয়ার প্লে–র প্রথম ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশ বিনা উইকেটে তোলে ৩৬ রান। শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের মন্থর উইকেটে বল থেমে আসায় সহজাত ব্যাটিংটা করতে পারছেছিলেন না দুই ওপেনার। তারপরও দুজনের অর্ধশত রানের জুটি বাংলাদেশের উদ্বোধনের হতাশা অনেকটা দূর করে দিয়েছে।

যদিও সেটি বেশিদূর এগোয়নি।

লিটনের বিদায়
দলকে ৫৯ রানের জুটি উপহার দিয়ে বোল্ড হলেন লিটন দাস। রচিন রবীন্দ্রর টার্ন করে বেরিয়ে যাওয়া বলে ঘুরিয়ে খেলতে গিয়েছিলেন লিটন, তবে ব্যাটে লেগে বল গিয়ে ভেঙে দিয়েছে স্টাম্প। ২৯ বলে ৩৩ রান করে ফিরেছেন লিটন, ৫৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

উইকেটে নেমেই ফিরলেন মুশফিক
লিটনের বিদায়ের ক্রিজে নেমেই বিদায় নিয়েছেন মুশফিক। বরীন্দ্রর বলে স্টাম্পড হয়ে শূন্য রানেই ফিরেছেন তিনি। রবীন্দ্রর ঝুলিয়ে দেওয়া বলে খেলতে গিয়ে মিস করেছেন মুশফিক, তবে ক্রিজে পা ফেরাতে পারেননি। টম ল্যাথাম ভেঙেছেন স্টাম্প, বাংলাদেশ হারিয়েছে দ্বিতীয় উইকেট।

সাকিবও ফিরলেন তাড়াহুড়ো করে
মুশফিকের বিদায়ের পর ক্রিজে নেমেই মারমুখী দেখা যায় সাকিবকে। ১১তম ওভারে ম্যাকনকিকে দুটি চার মারলেও শেষ বলে তাকে তুলে মারতে গিয়ে আউট সাকিব। ৭ বলে ১২ রান করে আউট হলেন তিনি।

অবশেষে ফিরলেন নাঈম
ক্রিজে অনেকক্ষণ থেকেও ফিফটি করতে পারলেন না নাঈম। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে ৩৪ রানের জুটি উপহার দিয়ে ফিরেছেন এ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। রবীন্দ্রর বলে ফেরার আগে ৩৯ বরে ৩৯ করেন নাঈম।

হতাশ করলেন আফিফ
৩ বল টিকল আফিফের ইনিংস। তিন বল থেকে তিন রান করে এই ইনিংসে এজাজ প্যাটেলকে প্রথম উইকেটের স্বাদ দিলেন এই বাঁহাতি। বাংলাদেশের স্কোর ৫ উইকেটে ১০৯ রান।

শেয়ার করুন