নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যের রাতভর অশ্লীল নৃত্যের আয়োজন

পঞ্চম দফায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জিতেই সমর্থকদের জন্য মেয়ে এনে নাচ ও মাদকের আসর বসানোর অভিযোগ উঠেছে নবনির্বাচিত এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। রোববার (৯ জানুয়ারি) সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নে এমন ঘটনা ঘটে। ওই ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রকিবুজ্জামান আলপিন নিজ বাড়িতে এই আয়োজন করে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, গত ৫ জানুয়ারি পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে তাড়াশ উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নে ভোট হয়। এতে ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন রকিবুজ্জামান আলপিন। নির্বাচিত হয়েই রোববার রাতে দোবিলা গ্রামের নিজ বাড়িতে পাঁচজন মেয়ে এনে নাচের আয়োজন করেন রকিবুজ্জামান।

অনুষ্ঠানস্থলেই মদপান ও অশ্লীলতায় মেতে ওঠেন তার সমর্থকরা। এ সময় মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সাইদুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন। পরে এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

এদিকে মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান ম্যাগনেট বলেন, স্থানীয়রা বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। এ ধরনের অশ্লীল আয়োজন করা একজন ইউপি সদস্যের শোভা পায় না। খোঁজ নিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলে আশিক বলেন, এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।