টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিউজিল্যান্ডকে “সর্বনিম্ন রানে” অল আউট করে রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশ

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিউজিল্যান্ডকে “সর্বনিম্ন রানে” অল আউট করে রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশ

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে লজ্জার রেকর্ড করলো নিউজিল্যান্ড। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রান ৬০ রানে অলআউট হয়েছে নিউজিল্যান্ড। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৯ রানের মধ্যে ৪টি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে নিউজিল্যান্ড। ওই চাপা সামাল দিতে পারেনি নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা।

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে আজ মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টম লাথাম।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই নিউজিল্যান্ডের ওপেনার রাচিন রবীন্দ্রকে শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মেহেদী হাসান। নিজের অভিষেক ম্যাচে মেহেদীর হাতেই ক্যাচ দিয়ে ০ রানে ফেরেন রাচিন। সাকিবের ঘূর্ণিতে বোল্ড ইয়াং। ইনিংসের তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে ১১ বলে মাত্র ৫ রান করে ফেরেন ইয়াং।

সাকিবের স্লো বল বুঝে ওঠার আগেই ভেঙে যায় ইয়াংয়ের উইকেট। পরের ওভারে নাসুম ফেরান অভিজ্ঞ কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে। মাত্র ১ রান করেন গ্র্যান্ডহোম। নাসুমের একই ওভারে ১ রানে ফেরেন টম ব্লান্ডেল। এরপর কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করে নিউজিল্যান্ড। অধিনায়ক টম লাথাম এবং হেনরি নিকোলস গড়ে তোলেন ৩৪ রানের পার্টনারশিপ।

তবে এরপর আবারও ধসে পড়ে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং। দলীয় ৪৩ রানের মাথায় এই জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। ২৫ বলে ১৮ রান করা নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টম লাথাম কে ফেরান মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। পরের ওভারেই কোল ম্যাককনিকে ০ রানের প্যাভিলিয়নে ফেরেন সাকিব আল হাসান।

অন্য প্রান্তে থাকা হেনরি নিকোলসকে ১৭ রানের প্যাভিলিয়নে ফেরেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। প্রথম ওভারেই উইকেট না পেলেও ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারে এসে জোড়া উইকেট তুলে নেন মোস্তাফিজুর রহমান। দলীয় ৫৫ রানের মধ্যে নবম উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ৬০ রান করে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। এর আগে চট্টগ্রামে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল নিউজিল্যান্ড।

এর আগে অস্ট্রেলিয়াকে ৬২ রানে অলআউট করেছিল বাংলাদেশ। বাংলাদেশের হয়ে মেহেদী হাসান ১৫ রানে একটি। নাসুম আহমেদ ৫ রানে ২ টি। সাকিব-আল-হাসান ৯ রানে ২ টি। মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ৭ রানে ২ টি এবং মোস্তাফিজুর রহমান ১৩ রানে ৩ উইকেট লাভ করেন।

বাংলাদেশ একাদশ : নাইম শেখ, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), আফিফ হোসেন ধ্রুব, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান ও নাসুম আহমেদ।

নিউজিল্যান্ড একাদশ : হেনরি নিকোলস, উইল ইয়ং, রাচিন রবীন্দ্র, টম লাথাম (অধিনায়ক/উইকেটরক্ষক), টম ব্লান্ডেল, কোল ম্যাককনি, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, ডগ ব্রাসওয়েল, জ্যাকব ডাফি, ব্লের টিকনার ও এজাজ প্যাটেল।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *