Breaking News

টাকার লো’ভে প্রথম স্বামীকে ছেড়ে সাহেদকে বিয়ে করেন সাদিয়া

প্রথম স্বামী এক ব্যব’সায়ী। সাদি’য়া আ’বার বিয়ে ক’রার পর প্র’থম স্বা’মী গুল’শানে প্রকাশ্যে সা”হেদকে মা’রপি’ট করে রা’স্তায় ফে’লে চলে যায়। পরে তার বন্ধু’রা তা’কে উ’দ্ধার করে হাস’তা’লে ভ’র্তি করে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জা’নায়, বি’টিভি’র সংবাদ পাঠি’কা ছিলেন সাদিয়া আরা”বী রি’ম্মি।

তার মা শা”হিদা আরাবী বিটিভি”র প্রডিউ’সার। ২০০৭ সালে সা’দিয়ার মা’য়ের কাছে বাবা মা’রা’ যাও’য়ার গল্প বলে সি’মপ্যা’থি আ’দায় করে সাদি’য়াকে বি’য়ে করে সাহেদ। আর সাদি’য়ার দিক থেকে ছি’লো টা’কার নে’শা।

জধানীর বনানী ডিওএইচএসের ৪ নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাসার নিচতলায় স্ত্রী’ সাদিয়া আরা’বী রিম্মি ও দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন সাহেদ। ৩ হা’জার ৬০০ বর্গফুটের ফ্ল্যা’টের মা’সিক ভাড়া ৯০ হাজা’র টাকা।

সাইরেন বা’জা’নোর হু’টার লাগা’নো গা’ড়িতে দে’হর’ক্ষী নিয়ে চ’লতেন শাহে’দের স্ত্রী’। শাহেদের পা’পের টা’কায় তিনি বি’লাসী জীব’নযা’পন কর’তেন। স্বা’মীর ম’তো তারও নে’শা গুরুত্ব’পূর্ণ ব্য’ক্তিদের স’ঙ্গে ছবি তো’লা। বিভিন্ন অ’নুষ্ঠা’নে গিয়ে ম”ন্ত্রী-এমপিসহ ভিআ’ইপি’দের সঙ্গে ছবি তুলতেন। এসব ছবি বাঁ’ধিয়ে রাখ’তেন বাসায়, প্র’চার করতেন সামা’জিক গণ’মাধ্যমে।

হে’দের স্ত্রী’ সাদি’য়া আ’রাবী রিম্মি ব’লেছেন, তার স্বামী’র নামে সংবাদ’মাধ্যমে যেসব প্রচা’র হ’চ্ছে তার স’টা ঠিক নয়। তবে এসব খবরে’র ‘কিছু’ স’ত্যতা আছে বললেও সত্যগু’লো কী’ কী’, তা তিনি বলেননি।

শ্যত স্বামীর পক্ষ নিয়ে সাদিয়া সংবাদমাধ্যমে যে সব প্রচারিত হচ্ছে তার সবটাই ঠিক নয়। কিছু সত্য আছে। বি’ভিন্ন মাধ্যমে তার যে হাজার হাজা’র কোটি টাকার কথা বলা হচ্ছে আমি স্ত্রী’ হিসা’বে কি’ছুই জানি না।

তিনি বলেন, আমিও জা’নতে চাই তার কোথা’য় এত টা’কা আছে। তদ’ন্ত হোক, সবাই জানু’ক সত্য ঘট’না। যার দু’ইটা হা’সপা’তাল আছে তার তো কি’ছু টাকা থাকবে। যত’টুকু জানি তিনি ‘ক্লি’ন বিজ’নেস’ করেন। তত’টুকু’ই। তবে অ’ন্যায় করে থা’কলে তার পাশে নেই।

সাহে’দের সঙ্গে তার সংসার ‘জীবন ১৬ বছরের জানি’য়ে সা’দিয়া বলেন, টিভিতে ট’ক শো, বিভিন্ন ব্য’ক্তির সাথে তার ছবি এসব মা’ত্র তিন-চার বছর হল। তার এসবের কারণে ভা’লোই মনে হত। কিন্তু বর্ত’মান পরি’স্থিতিতে মানু’ষের কাছে এতটা হেয় হ’তে হবে ভাবতে পারিনি। আমি এসব ঘটনায় খুব’ই লজ্জি’ত ও ম’র্মা’হত।

পারিবারিক জী’বনে তাদের মধ্যে তেম’ন কোনো ঝা’মেলা ছিল না জা’নিয়ে দুই কন্যা সন্তা’নের জন’নী সা’দিয়া বলেন, সে পরি’বারকে ঠিক মতো সম’য় দিত না সত্য। তবে সংসা’রে কোনো অশা”ন্তি ছিল না। প্রায় প্র’ত্যেক পরি’বারে স্বা’মী-স্ত্রী’র মধ্যে একটু ঝা’মেলা থে’কেই থাকে, এটা আ’মা’রও ছিল। তবে ব’লার মতো না।

সাদিয়া বলেন, গত ৬ জুন উত্ত’রায় রিজে’ন্ট হাস’পাতা’লে র‌্যা’­বের অ’ভিযা’নের পর সাহেদের সঙ্গে তার ‘শে’ষ কথা হয়েছিল’। সে শুধু বলেছে, রা’তে ফেরা হবে না, যেখানে আছি ভালো আছি। এরপর তার সাথে আর কথা হয়নি। পরে তার লোক’জনের মাধ্যমে যোগা’যোগ করার চেষ্টা করেছি। সেই সব লো’কজন প্রথম প্রথম ফোন ধরে’ছিলেন, এখন আর ধ’রেন না।

এক প্রশ্নের জবা’বে তিনি বলেন, সাহেদ এখন কো’থায় আ’ছেন, তা তিনি ‘জানেন না’। তবে তাকে খুঁ’জতে বা অন্য কোনো কিছু’র জন্য আই’নশৃ’ঙ্খলা বাহি’নীর সদ’স্যরা তার বাসায় আ’সেননি।

সাহেদ উল্লেখ্য, বাংলা’দেশে ক’রোনাভাই’রা’সের প্রা’দুর্ভাব শুরুর পরপ’রই গত মা’র্চে রিজেন্ট হাস’পাতাল”কে কোভিড-১৯রোগীদের চিকিৎসার জন্য নির্দিষ্ট করেছিল সরকার। যদিও তাদের হাস’পাতাল চালানো’র অনু’তির মেয়া’দ শে’ষ হয়ে গিয়ে’ছিল আগেই।

সেখা’নে নমুনা পরী’ক্ষা না করে করো’নাভাই’রাসের ভু’য়া রিপোর্ট দেওয়ার বেশ কিছু অ’ভি’যোগ পাও’য়ার পর র‌্যা’­ব খোঁজ নিয়ে জানতে পারে সরকারি প্রতিষ্ঠা’নের সিল ও প্যাড নকল করে সেসব রিপো’র্ট তৈরি করা হলেও সেসব স্বা’স্থ্যকেন্দ্র এসব ন’মুনা পরীক্ষা করেনি, রিপো’র্টও দেয়নি।

ওই অ’ভি’যো’গের ভি’ত্তিতে সোম, মঙ্গল ও বুধবার রিজেন্ট হাসপাতা’লের উত্তরা ও মিরপুর শাখা এবং রিজেন্ট গ্রুপের প্র’ধান কা’র্যালয়ে অ’ভি’যান চা’লায় র‌্যা’­ব। অ’ভিযা’নে বেশ কিছু অনু’মো’দনহীন টেস্ট কিট এবং করো’নাভাই’রা’সের ভু”য়া রিপোর্ট পাওয়ার কথা জা’নানো হয় র‌্যা’­বে’র পক্ষ থেকে।

অ’ভি’যানের প্র’থম দুই দিনে উত্ত’রা থেকে মোট আ’টজন’কে গ্রে’প্তার করা হয়। পরে মঙ্গল’বার রাতে রিজেন্ট হাস’পাতা’লের বিরু’দ্ধে অনিয়’ম ও প্রতারণা’র অ’ভি’যোগ ১৭ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা করা হয় রা’জধানী’র উত্তরা পশ্চি’ম থা’না’য়।

শেয়ার করুন

Check Also

করো’না র টিকা নিতে গিয়ে জানতে পারলেন তিনি মা’রা গেছেন

করো’নাভাই’রাসের টিকার (ভ্যাকসিন) নিব’ন্ধন ক’রতে গিয়ে দে’খতে পান ২০১৪ সালের ৩ জুনে মা’রা গেছেন তিনি। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *