জুয়ার আসর থেকে আ’লীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৯

জুয়ার আসর থেকে আ’লীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৯

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক তালিবুর রহমান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মনিরুজ্জামান সহ ৯ জনকে জুয়া খেলার সরঞ্জাম, নগদ টাকা, মাদকসহ গ্রেফতার করেছে ঠাকুরগাঁও ডিবি পুলিশ। মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বালিয়াডাঙ্গী বড় পলাশবাড়ী ইউনিয়নের কুশলডাঙ্গী বাজারের ভিতর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পরে আসামিদের নামে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয় ও আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। ডিবির ওসি মোশাব্বেরুল হক বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশের একটি চৌকস দল অভিযান পরিচালনা করে আসামিদের গ্রেফতার করে ও মালামাল উদ্ধার করে। পরে জুয়া আইনে একটি মামলা করা হয় ও আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Read More – ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজীবকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজীব আহসানকে সাদা পোশাকের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করে নিয়ে গেছে বলে দাবি করেছে বিএনপি। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে বিএনপির কেন্দ্রীয় দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক সভাপতি রাজীব আহসানকে বুধবার রাত ১১-১৫ মিনিটে সাদা পোশাকধারী আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রাজধানীর রাইফেলস স্কয়ারের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর এখন পর্যন্ত তার কোন সন্ধান না দেয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, বর্তমান ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে কব্জায় নিয়ে গণতান্ত্রিক আচার আচরণ তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার দম্ভে অগণতান্ত্রিক পন্থায় দেশ শাসন করছে। জনগণকে উপেক্ষা করে দেশ শাসনের ফলে বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার জনগণ থেকে সম্পূর্ণরুপে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদেরকে ধারাবাহিকভাবে অপহরণ করে গুম করা হচ্ছে, গ্রেফতার করা হচ্ছে।

আর তারই অংশ হিসেবে বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক সভাপতি রাজীব আহসানকে সাদা পোশাকধারী আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকেরা তুলে নিয়ে গেছে। গভীর উদ্বেগের বিষয় এই যে, তাকে গ্রেফতারের কথা অস্বীকার করা হচ্ছে এবং এখনও পর্যন্ত তার কোন সন্ধান দেয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সরকার জনগণকে ভয় পাইয়ে দিয়ে দেশে ফ্যাসিবাদী শাসন চালু রাখতেই আইন শৃঙখলা বাহিনীকে দিয়ে বিরোধী নেতাকর্মীদের হত্যা, অপহরণ ও গুমের মাধ্যমে ভয়ঙ্কর কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখেছে। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী সরকার ভুলে গেছে যে, যুগে যুগে নিষ্ঠুর স্বৈরাচারদের ভাগ্যে কি পরিণতি ঘটেছে। ফখরুল বলেন, আমি অবিলম্বে রাজিব আহসানকে সুস্থ অবস্থায় জনসমক্ষে হাজির করে তার পরিবারের নিকট ফিরিয়ে দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *