ছাদ ফুটো হয়ে বালিশে এসে পড়লো উল্কা!

ছাদ ফুটো হয়ে বালিশে এসে পড়লো উল্কা!

একেই বলে কপালের জোর। কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন এক মহিলা। আচমকা বাড়ির ছাদ ভেঙে একটি পাথরের টুকরো এসে তার বালিশের উপর পড়ে। মাত্র কয়েক ইঞ্চির জন্য বেঁচে যায় তার মাথা। পরে জানা গেছে, ওই পাথরটি আসলে একটি উল্কা ছিল।

ওই মহিলার নাম রুথ হ্যামিলটন। তাঁর বাড়ি কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায়। এই দুর্ঘটনার সময় ঘুমিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু উল্কা এসে পড়ার আওয়াজে ঘুম ভেঙে দেখেন আশপাশে ধুলো এবং ছাদ ফুটো হয়ে গেছে। এর পরই বালিশের পাশে পাথরের টুকরো পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। ঘুম থেকে উঠে এই সব দেখে ভয় পেয়ে যান রুথ। কী ঘটেছে তা বুঝতে না পেরে পুলিশকে ফোন করেন তিনি।

পুলিশ এসে ওই পাথরের টুকরো উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তা পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, ওই পাথর আসলে একটি উল্কার টুকরো। এবং তা কয়েক কোটি বছরের পুরনো। এই ঘটনা নিয়ে রুথ সে দেশের এক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘কী ঘটেছে তা বুঝতে না পেরে খুব ভয় পেয়েছিলাম। ভাবছিলেন পাথরটা ফেটে যাবে কি না। কপাল জোরে আমি দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছি।’ সূত্র: আনন্দবাজার।

শেয়ার করুন