চীনের সাত প্রদেশে টানা বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস

করোনা ভাইরাসের মধ্যে চীনে বন্য ও ভূমিধসের দেখা দিয়েছে। চীনের সাংহাই, হুনান, হুবেইসহ সাতটি প্রদেশে টানা বৃষ্টির কারণে বন্যা ও ভূমিধস দেখা দেয়। রবিবার (২৮ জুন) দেশটির জাতীয় আবহাওয়া দপ্তর এসব এলাকায় আবারও বন্যা সতর্কতা জারি করেছে।

গত মঙ্গলবার থেকে চলমান টানা বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় স্থানীয় ৩৮টি কাউন্টি এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে অর্ধশতাধিক বাড়িঘর। জিয়ানসি প্রদেশে বিপজ্জনক অবস্থা থেকে ৩৭ হাজার বাসিন্দাকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। দুর্যোগপূর্ণ অঞ্চলগুলোতে এখনও উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছেন জরুরি সহায়তাকারী দলের সদস্যরা।

Read More-বাংলাদেশিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করল ইউরোপ!

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসায় ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো তাদের সীমানা খুলে দিচ্ছে। এর ফলে চালু হতে যাচ্ছে মহাদেশটির সেনজেন এলাকার দেশগুলোতে বিমান চলাচল। জুলাইয়ের শুরুতে ইইউ দেশগুলোর সীমানা উন্মুক্ত হচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে সেনজেনভুক্ত দেশগুলো ৫৪টি দেশের নাম প্রকাশ করেছে যারা ভিসা পাবে। তবে সেনজেনভুক্ত দেশের ভিসা তালিকায় নেই বাংলাদেশ। যদিও সেখানে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে প্রতিবেশী ভারত ও মিয়ানমারের নাম। ভ্রমণ করতে পারবেন ভুটানের নাগরিকেরাও। তালিকাটিতে বাংলাদেশের মতো নাই পাকিস্তান ও নেপালের নামও। তবে মহামারী পরিস্থিতি এবং প্রত্যেক দেশে করোনাভাইরাস নিয়ে তাদের ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে এই তালিকা হালনাগাদ করা হবে বলে জানান ইইউ কর্মকর্তারা।

সেনজেন অঞ্চলের ভিসা তালিকায় থাকা দেশগুলো হচ্ছে, আলবেনিয়া, আলজেরিয়া, অ্যান্ডোরা, অ্যাঙ্গোলা, অস্ট্রেলিয়া, বাহামাস, ভুটান, বসনিয়া এবং হার্জেগোভিনা, কানাডা, চীন, কোস্টারিকা, কিউবা, উত্তর কোরিয়া, ডোমিনিকা, মিশর, ইথিউপিয়া, জর্জিয়া, গায়ানা, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, জ্যামাইকা, জাপান, কাজাখস্তান, কসোভা, লেবানন, মরিশাস, মোনাকো, মঙ্গোলিয়া, মন্টিনিগ্রো, মরোক্কো, মোজাম্বিক, মিয়ানমার, নামিবিয়া, নিউজিল্যান্ড, নিকারাগুয়া, পালাউ, প্যারাগুয়ে, রুয়ান্ডা, সেন্ট লুসিয়া, সার্বিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, তাজিকিস্তান, থাইল্যান্ড, তিউনিসিয়া, তুরস্ক, উগান্ডা, তুর্কমেনিস্তান, ইউক্রেন, উরুগুয়ে, ভ্যাটিকান সিটি, ভেনেজুয়েলা, ভিয়েতনাম এবং জাম্বিয়া।

মানুষের যাতায়াত সহজ করার লক্ষ্যে ইউরোপীয় দেশগুলোকে একীভূত করে এই সেনজেন অঞ্চলের সৃষ্টি হয়। ১৯৮৫ সালে লুক্সেমবার্গের সেনজেন শহরে একটি চুক্তি সাক্ষর করে কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ। বলা যায় সেই চুক্তির ধারাবাহিকতাতেই সৃষ্টি হয়েছে সেনজেন এলাকা এবং সেনজেন ভিসা। অস্ট্রিয়া, আইসল্যান্ড, ইতালি, এস্তোনিয়া, গ্রিস, চেক রিপাবলিক, জার্মানি, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ড, নরওয়ে, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, ফ্রান্স, ফিনল্যান্ড, বেলজিয়াম, মাল্টা, লুক্সেমবার্গ, লাতভিয়া, লিথুয়ানিয়া, স্পেন, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, হাঙ্গেরি -এই দেশগুলো সেনজেন দেশ। সেনজেন ভিসা দিয়ে সবগুলো দেশ ঘুরে আসা যায়। দেশগুলোর মধ্যে কোনো সীমানা নিয়ন্ত্রণও নেই।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: