চলচ্চিত্রের কিংবদন্তিকে নিয়ে শাকিব খানের আবেগময় স্ট্যাটাস

বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী, নির্মাতা ও সাবেক এমপি সারাহ বেগম কবরী চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

কিংবদন্তি এই চলচ্চিত্র অভিনেত্রীর মৃত্যুতে চলচ্চিত্রাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও বরেণ্য এ অভিনেতার বিয়োগান্তে শোক প্রকাশ করে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিচ্ছেন তার ভক্ত ও অনুরাগীরা।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকাই ছবির এ সময়ের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান।

শুক্রবার দিবাগত রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে কবরীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শাকিব লিখেছেন, চলচ্চিত্রের যারা পথপ্রদর্শক তারা একে একে চলে যাচ্ছেন। সেই পথে পাড়ি দিলেন আমাদের চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী কবরী সারোয়ার আপা। তিনি আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন…!

চলচ্চিত্রের প্রাজ্ঞজনের একজন ছিলেন কবরী আপা। তিনি সোনালি অতীতে সমুজ্জ্বল সাক্ষী ছিলেন। সুতরাং, হীরামন, ময়নামতি, চোরাবালি, পারুলের সংসার, বিনিময়, আগন্তুক, সুজন সখী, তিতাস একটি নদীর নাম, নীল আকাশের নিচেসহ অসংখ্য জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের নায়িকা ছিলেন কবরী আপা।

অভিনেত্রী পরিচয়ের বাইরে পরিচালনাতেও সুনাম অর্জন করেছিলেন তিনি। পর্দার মিষ্টি মেয়ে হিসেবে খ্যাতি পেলেও ব্যক্তি জীবনে কবরী আপা ছিলেন অত্যন্ত ব্যক্তিত্ববান একজন মানুষ।

কিংবদন্তি এই মানুষটির সঙ্গে আমার অসংখ্য স্মৃতি। যখনই দেখা হতো আমাকে স্নেহ করতেন। তাঁর সময়কার বিভিন্ন স্মৃতি শেয়ার করতেন। কবরী আপার মৃত্যুতে প্রিয় অভিনেত্রী হারানোর পাশাপাশি একজন অভিভাবক হারানোর শোক অনুভব করছি।যেখানেই থাকুন, ভালো থাকুন কবরী আপা…!

করোনার কাছে হেরে গেলেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩ দিনের মাথায় তিনি চলে গেলেন। শুক্রবার রাত ১২টা ২০ মিনিটে রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

শেয়ার করুন