কুয়েত প্রবাসীদের জন্য সুখবর

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সারা বিশ্বে প্রবাসীরা পড়েছে চরম বিপাকে। বিশেষ করে লকডাউন এলাকাগুলোতে এ সমস্যা সবচেয়ে বেশি। তারা না পারছে কাজ করতে না পারছে তাদের সমস্যার কথা বলতে। তাই এই সমস্যা সমাধানে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে কুয়েত সরকার।

কুয়েতের শ্রম মন্ত্রণালয় শ্রমিকদের অভিযোগ শুনতে লকডাউনে থাকা অঞ্চলে নতুন অফিস খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কুয়েতের শ্রম ও জনশক্তিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মরিয়ম আল-আকিলের বরাত দিয়ে দেশটির সবকটি সংবাদ মাধ্যমে এ সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে।

মধ্যপাচ্যের জনপ্রিয় পত্রিকা আরব টাইমসে প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, ফারওয়ানিয়া ও জিলিব আল সুয়েখ লকডাউন এলাকায় লেবার অফিস খুলেছে জনশক্তি মন্ত্রণালয়। আকামা সমস্যা, বেতন দেরিতে দেওয়া, কিংবা না দেওয়া, সুপারভাইজারের ঘুষ চাওয়া, ইত্যাদি বিষয়ে সরাসরি যে কোনো অভিযোগ জানাতে পারবে। সেক্ষেত্রে তাদের গোপনীয়তা রক্ষা করবে মন্ত্রণালয়।

শ্রমিকদের অধিকার বাস্তবায়নের ব্যর্থতায় কোম্পানির মালিকদের সাথে শ্রমিকদের বিরোধ সংক্রান্ত অভিযোগ পাওয়ার পর সম্পূর্ণ লকডাউন অঞ্চলে জনশক্তি বিষয়ক জেনারেল অথরিটির অফিস বরাদ্দ করেছে সামাজিকবিষয়ক মন্ত্রী ও অর্থনৈতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মরিয়ম আল-আকিল।

সামাজিকবিষয়ক মন্ত্রী ও অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রী আল-আকিল সেদেশের পত্রিকা কুয়েত নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, উপ-প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং মন্ত্রিপরিষদবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আনাস আল-সালেহের সঙ্গে সমন্বয় একটি অফিস এবং তদন্তের সাধারণ প্রশাসনের সাথে যুক্ত একজন অফিসারকে জিলিব আল-শুয়েখ এবং ফারওয়ানিয়া এলাকায় পাঠানো হবে।

কুয়েত সরকারের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে প্রবাসীরা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: