কাতার প্রবাসীর স্ত্রীকে নিয়ে পালালো আরেক প্রবাসী!

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজে’লার শুভপুর ইউনিয়নের কাদঘর গ্রামের কাতার প্রবাসী মোঃ নজরুল ই’সলামের স্ত্রী পাপিয়া প’র’কী’য়া প্রে;মিকের সাথে পা’লি’য়ে গেছেন। প্রবাসী নজরুল ই’সলাম টেলিফোনে এই প্রতিবেদককে জানান, ১৪ মার্চ রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে আমার স্ত্রী পাপিয়া ব্যাংক থেকে ৩ লাখ ৯৪ হাজার টাকা উত্তোলন করে নিয়ে যায়।

জমি ক্রয়ের জন্য ঘরে থাকা আরও ১২ লাখ টাকা এবং আমার দেয়া ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ পরকীয়া প্রে;মিক শাহীন মিয়ার সাথে তিনি পা’লি’য়ে যান। নগদ টাকা ও সম্পদ মি’লিয়ে প্রায় ২৪ লাখ টাকা তিনি নিয়ে গেছেন। আমার স্ত্রীর প’র’কি’য়া প্রে;মিক শাহীন মিয়া আমাদের কাদঘর গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে। তিনি ইতালি থাকেন। দেশে ছুটিতে এসে তিনি এ কান্ড ঘ’টিয়ে’ছেন। স’ম্পর্কে শাহীন মিয়া আমার জেঠাত (ছোট) ভাই।

নজরুল ই’সলাম বলেন, প্রায় ১২ বছর আগে আমি বিয়ে করি। আমার স্ত্রীর নাম পাপিয়া। তিনি চৌদ্দগ্রাম উপজে’লার বারাইশ গ্রামের মোঃ জহিরুল হকের মেয়ে। আমাদের সংসার জীবনে ১১ বছরের একটি পুত্র স’ন্তান রয়েছে। তার নাম মো: ফাহিম। এ ব্যাপারে ভি’কটিমের বোন মোসা: রোকেয়া বেগম বা’দী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থা’নায় একটি অ’ভিযো’গ দা’য়ের করেছেন। মা’মলায় যাদেরকে বি’বা’দী করা হয়েছে তারা হলেন, মোসা: পাপিয়া আক্তার পিতা জহিরুল হক, মোঃ শাহীন মিয়া পিতা সিরাজ মিয়া ও মোসা: আইরিন আক্তার পিতা ইয়াসিন মিয়া।

পা’লিয়ে যাওয়ার চারদিন অতিবাহিত হলেও তাদের কোন স’ন্ধান পাওয়া যায়নি। টাকা-পয়সা হা’রিয়েও চরম হ’তা’শায় আছেন কাতার প্রবাসী মো: নজরুল ই’সলাম। তাদের স’ন্ধান দিতে পারলে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন মোঃ নজরুল ই’সলাম। এছাড়া তাদেরকে দেখতে পেলে থা’নায় সোপর্দ করার জন্য অ’নু’রোধ করা হয়েছে। তথ্য সূত্রঃ দৈনিক রেনেসা অনলাইন’।

শেয়ার করুন