‘কমান্ডো’ ছবি ইস’লামের বি’রুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ : মা’ওলানা সাইফুল্লাহ

টিজারেই বিতর্ক তৈরি করেছে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘কমান্ডো।’ শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত এই ছবিতে ইস’লামকে অবমাননা করা হয়েছে বলে লিখিত অ’ভিযোগ তুলেছেন মা’ওলানা আব্দুল্লাহ হাই সাইফুল্লাহ। টিজার থেকে কয়েকটি ছবির স্ক্রিনশট নিয়ে তিনি ‘কালেমা’র ব্যবহারকে জ’ঙ্গিবাদের সিম্বল হিসেবে টিজারে যে দেখানো হয়েছে, সেটা তুলে ধরেছেন।

দুনিয়াব্যাপী ইস’লাম নিয়ে যে বহু পর্যায়ের ষড়যন্ত্র চলছে, এই সিনেমা তারই অংশ বলে মনে করছেন মা’ওলানা সাইফুল্লাহ। নিজের ফেসবুক পেইজে তিনি লিখেছেন, ‘সিনেমা দেখি না, খবরও রাখি না; কিন্তু অনলাইন দুনিয়ায় যেহেতু আছি, সিনেমা’র টিজারের স্ক্রিনশট দেখে কপাল কুঁচকে গেল। দুনিয়াব্যাপী ইস’লাম নিয়ে যে বহু পর্যায়ের ষড়যন্ত্র চলছে, এই সিনেমা তারই অংশ বলে মনে হচ্ছে। ইস’লাম আর মু’সলমানদের নানা কৌশলে এত দিন দাড়ি, টুপি, জুব্বা, রুমাল, সুরমাকে রাজাকার, বদমায়েশ, চরিত্রহীনদের পোশাক বানিয়ে অ’পমান করেছে ভা’রত ও এ দেশের মুভি মেকাররা। এবার যৌথ উদ্যোগ নিয়েছে! নতুন সংযু’ক্তি, চরিত্র নয় সাবজেক্টই হবে সেটি! কৌশলে বিষয়টিই বাংলা সিনেমা’র সাবজেক্ট হচ্ছে! মুভি বিশ্বমানে নিয়ে যাওয়া বলে কথা!’

দুটি ছবি পাশাপাশি পোস্ট করে মা’ওলানা সাইফুল্লাহ লিখেছেন, “১ম ছবিটি দেখু’ন। কালেমা খচিত পতাকা, পতাকার নিচের অংশে AK-47-এর সিম্বল । পতাকার পেছন থেকে অ’স্ত্র হাতে বেরিয়ে আসছে কথিত স’ন্ত্রাসীরা- দ্বিতীয় ছবিটিতে দেখু’ন। চারদিকে আরবি লেখা। টিজারের এই অংশে দেখানো হচ্ছে কথিত স’ন্ত্রাসীরা সুন্নতি পোশাক পড়ে ‘নারায়ে তাকবির’, ‘আল্লাহু আকবার’ স্লোগান দিচ্ছে।”

তিনি বলেন, “কালেমাধারীদের পরাজিত করার জন্য ‘নায়ক দেব’ যু’দ্ধ করে যাবে এই সিনেমাতে। এই মুভিতে দেখাবে ইস’লামী জ’ঙ্গিবাদ দমনে নায়ক দেব এসে হাজির হয়েছে। আর জ’ঙ্গিদের সিম্বল হিসেবে কালিমা খচিত পতাকা ব্যবহার করা হয়েছে। এখানে সুস্পষ্টভাবে ইস’লামকে ডিমোনাইজ করা হচ্ছে। ভিলেন বানিয়েছে ইস’লামকে। যা ইচ্ছাকৃত ইস’লামবিদ্বেষ। ইস’লাম কখনো জ’ঙ্গিধ’র্ম নয়, একই সঙ্গে ধ’র্মের নামে শুধু ইস’লামেই উগ্রতা আর জ’ঙ্গিবাদ আছে এমন নয়, সব ধ’র্মেই আছে, তাহলে মুভিতে কেনো ইস’লাম আর কালেমা’র পতাকারই শুধু ব্যবহার?’

পরিচালকের স্পর্ধা স’ম্পর্কে জানতে চেয়ে মা’ওলানা বলেন, ‘পরিচালক এই স্পর্ধা কোথায় পেল! নাট’ক-সিনেমায় আগে থেকেই খা’রাপ চরিত্র, ধ’র্ষক, বদমাশ দেখাতে দাড়ি-টুপি চোখে সুরমা লাগায়। আমাদের নীরবতায় এখন ভিলেন চরিত্রে সরাসরি কালিমা ব্যবহার করার সাহস দেখাচ্ছে।’

বিভিন্ন ধ’র্মেই জ’ঙ্গিবাদ রয়েছে উল্লেখ করে মা’ওলানা সাইফুল্লাহ বলেন, ‘মনে রাখবেন ইস’লামের সঙ্গে জ’ঙ্গিবাদের কোনো স’ম্পর্ক নেই। প্রকৃত মু’সলিম জ’ঙ্গি দূরের কথা, ত্রাশের পক্ষেও থাকতে পারে না। কিন্তু কালেমা’র পতাকাকে জ’ঙ্গির ট্যাগ লাগিয়ে কারো হাতে ঈ’মানদাররা তুলেও দিতে পারে না। রিসেন্ট ঘটে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের স’ন্ত্রাসী হা’মলা নিয়ে ক্রুশবিদ্ধকরণ মুভি বানিয়ে, খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে দায়ী করে, দেব ও শোয়ার্জনেগারকে নায়ক বানান। আরেকটা বানান লাখ লাখ মু’সলিমকে রাখাইন ও পার্শ্ববর্তী দেশের উগ্রবাদীদের দ্বারা হ’ত্যা, যু’দ্ধাপরাধ ও বাড়িঘর জালিয়ে দেওয়া নিয়ে। সেগুলো এত নিকটে ঘটলেও চোখে পড়ল না কেন? ভণ্ডামি সব ইস’লাম আর সুন্নাতি পোশাক নিয়ে, তাই না!
.
ইচ্ছাকৃত এসব শয়তানি কারবার দ্রুত বন্ধ করুন। নচেৎ এ নিয়ে শান্তির পরিবেশ নষ্ট হলে সিনেমা কর্তৃপক্ষ দায়- দায়িত্ব এড়াতে পারবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন মা’ওলানা সাইফুল্লাহ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

এই বিভাগের আরো খবর
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: