কনক সারোয়ারের বোন নুসরাতের বিরুদ্ধে দুই মামলা

কনক সারোয়ারের বোন নুসরাতের বিরুদ্ধে দুই মামলা

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিতর্কিত উপস্থাপক ড. কনক সারোয়ারের বোন নুসরাত শাহরিন রাকাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে রাষ্ট্রবিরোধী অপপ্রচার চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। সঙ্গে মাদকের মামলাও দিয়েছে র‍্যাব।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে র‍্যাব-১-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুল্লাহ আল মোমেন গণমাধ্যমকে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুটি মামলা করা হয়েছে নুসরাত শাহরিন রাকার বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার উত্তরা পশ্চিম থানায় এ মামলা দুটি করা হয়েছে। শাহরিনকে ওই থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকতারুজ্জামান ইলিয়াস মঙ্গলবার রাতে জানিয়েছেন, কনক সারোয়ারের বোন নুসরাত শাহরিন এখন থানা হেফাজতে আছেন। বুধবার তাকে আদালতে হাজির করা হবে।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাতে রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে নুসরাত শাহরিন রাকাকে আটকের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে হেফাজতে নিয়ে যায়।

সূত্র জানায়, বিদেশে পলাতক অবস্থায় ‘কথিত’ সাংবাদিক এবং টিভি উপস্থাপক ড. কনক সারোয়ার দীর্ঘদিন ধরে সরকারবিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত। তার বিরুদ্ধে ঢাকায় একাধিক মামলা রয়েছে। দেশে বেশ

কয়েক বছর কারাবন্দি ছিলেন তিনি। জামিনে জেল থেকে বেরিয়ে তিনি বিদেশে পালিয়ে যান। তার বর্তমান অবস্থান যুক্তরাষ্ট্রে। বিদেশে বসে তিনি বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনায় লিপ্ত রয়েছেন। এ ছাড়া তিনি সরকারের বিরুদ্ধে ক্রমাগত বিষোদগার চালিয়ে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন