উত্তেজিত কণ্ঠে যা বললেন মেসি

উত্তেজিত কণ্ঠে যা বললেন মেসি

মেসিরা ব্রাজিলে আসলো, অনুশীলন করল এবং সর্বশেষ মাঠে খেলতে নামল। ব্যস, তখনই দেখা দিল বিপত্তি, ৫ মিনিট খেলা হতে না হতেই মাঠে ঢুকে পড়লেন ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তারা। সমস্য কী? কারণ আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় কোয়ারেন্টিন নিয়ম মানেনি। তাই বলে খেলা শুরুর পরে মাঠে ঢুকে পড়তে হবে? হ্যাঁ, এমনটাই হয়েছে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের আর্জেন্টিনা ব্রাজিল ম্যাচে।

এদিকে বুয়েন্দিয়া বাদে বাকি তিনজনই ছিলেন আজ আর্জেন্টিনার মূল একাদশে। তিন দিন ধরে এদের ব্যাপারে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত না দেওয়া ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তারা ম্যাচ শুরুর সাত মিনিটের মাথায় মাঠে ঢুকে শুরু করলেন তুলকালাম! অভিযুক্ত চার খেলোয়াড়কে মাঠ থেকে নিয়ে যেতে চান তাঁরা! ফলে এখন আনুষ্ঠানিকভাবেই ম্যাচ স্থগিত।

রেডিও কন্তিনেন্তালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসি উত্তেজিত কণ্ঠে নিজের অসন্তোষের কথাও জানিয়েছেন বেশ ভালোভাবে, ‘আমরা ব্রাজিলে তিন দিন ধরে অবস্থান করছি। ওরা তাহলে ম্যাচ শুরু হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করল কেন?’ এক অভূতপূর্ব কাণ্ডের জন্য ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে ম্যাচ স্থগিতের সংবাদ দিয়েছে আর্জেন্টিনার ফুটবল সংস্থা।

ম্যাচের তখন পঞ্চম মিনিট, সাইড লাইনের পাশে অচেনা একজনকে দেখে আর্জেন্টিনার দুই খেলোয়াড় নিকোলাস ওতামেন্দি ও মার্কোস আকুনা জিজ্ঞেস করলেন তিনি কে? সঙ্গে সঙ্গে তাদের ঘিরে ধরলেন অনেকেই।

আর্জেন্টিনার ক্রীড়া পত্রিকা টিওয়াইসি জানিয়েছে, ম্যাচ অফিসিয়ালদের বাইরের উপস্থিত ব্যক্তিরা স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। ইংল্যান্ড থেকে আসা আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড়ের ব্যাপারে খোঁজ নিতে এসেছেন তারা। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর মাঠ ছেড়ে ড্রেসিং রুমে চলে যান আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা।

রয়টার্স জানায়, কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙার দায়ে আর্জেন্টিনার একাদশের তিন খেলোয়াড়ের খেলা নিয়ে আপত্তি জানায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তাদের অভিযোগের পর করিন্থিয়ান্স আরেনা ছেড়ে ড্রেসিং রুমে চলে যায় সফরকারীরা। ওই চার খেলোয়াড়ের তিন জন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস, ডিফেন্ডার ক্রিস্তিয়ান রোমেরো ও মিডফিল্ডার জিওভানি লো সেলসো ছিলেন সফরকারীদের শুরুর একাদশে।

ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের ঘিরে ধরার পর তারা কথা বলেন মেসি ও নেইমারের সঙ্গে। সেখানে সমস্যার সমাধান না হওয়ায় রেফারি কোপা আমেরিকার চ্যাম্পিয়নদের ড্রেসিং রুমে পাঠিয়ে দেয়। ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়-কোচদের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি পুরোটা সময় মাঠেই ছিলেন। তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও ব্রাজিল কোচ তিতের সঙ্গে কথা চালিয়ে যান। পরে এসে যোগ দেন মেসি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *