অস্ট্রেলিয়াকে ১০৫ রানের টার্গেট দিল টাইগাররা!

অস্ট্রেলিয়াকে ১০৫ রানের টার্গেট দিল টাইগাররা!

এক উইকেটে ৪৮ রান করে সম্মানজনক স্কোর গড়ার আভাস দিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণে ৯ উইকেটে ১০৪ রানেই গুটিয়ে গেল টাইগাররা। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ খেলায় জয় পেতে হলেঅস্ট্রেলিয়াকে ১০৫ রান করতে হবে।

শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের চতুর্থ খেলায় টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ।

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা করতে পারেনি স্বাগতিকরা। সৌম্য সরকারের বিদায়ের মধ্য দিয়ে ৩.৩ ওভারে ২৪ রানে ভাঙে ওপেনিং জুটি।

ব্যর্থতার বৃত্তেই আটকে আছেন সৌম্য। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারছেন না এ ওপেনার। আগের তিন ম্যাচে ২, ০ ও ২ রানে আউট হওয়া সৌম্য এদিন ফেরেন ১০ বলে ৮ রান করে।

এক উইকেটে ৪৮ রান করা বাংলাদেশ এরপর ৩ রানের ব্যবধানে হারায় সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও নুরুল হাসান সোহানের উইকেট।

আগের তিন ম্যাচে ৩৬, ২৬ ও ২৬ রান করা সাকিব এদিন ফেরেন ২৬ বলে ১৫ রান করে।

সাকিব আউট হওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নেমে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও নুরুল হাসান সোহান।

দুজনেই ফেরেন মিচেল সোয়েসপনের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে। আগের তিন ম্যাচে ৩, ২২* ও ১১ রান করা নুরুল হাসান সোহান পান গোল্ডেন ডাক।

মিচেল সোয়েসপনের আগের বলে সৌভাগ্য বশত এলবিডব্লিউ থেকে বাঁচেন ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম। ঠিক পরের বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে উইকেট কিপারের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে ৩৬ বলে ২টি চারের সাহায্যে ২৮ রান করেন এ ওপেনার।

নাঈম আউট হওয়ার পর বেশি সময় উইকেটে স্থায়ী হতে পারেননি আফিফ হোসেন। ১৭ বলে এক ছক্কায় ২১ রান করে ফেরেন তিনি।

১৭.২ ওভারে দলীয় ৮৭ রানে অ্যান্ডু টাইয়ের গতির বলে মিডউইকেটে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন শামিম।

আগের তিন ম্যাচের মধ্যে দুই খেলায় ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাওয়া এ তরুণ আউট হন ৪ ও ৩ রানে। এদিন ফেরেন ৬ বলে মাত্র ৩ রান করে।

শেয়ার করুন